আন এডেড মাদ্রাসার শিক্ষকদের উপর পুলিশী অত্যাচারের তীব্র নিন্দা জানালেন আব্বাস সিদ্দিকী

আন এডেড মাদ্রাসার শিক্ষকদের উপর পুলিশী অত্যাচারের তীব্র নিন্দা জানালেন আব্বাস সিদ্দিকী

আরিফুল ইসলাম, বেঙ্গল রিপোর্ট, হুগলী: আজ ২৯শে সেপ্টেম্বর পশ্চিমবঙ্গ সরকার অনুমোদিত শিক্ষক সংগঠনের আন এডেড মাদ্রাসার শিক্ষকদের বেতনের দাবীতে যে গনতান্ত্রিক পদ্ধতিতে শান্তিপূর্ন অবস্থান বিক্ষোভ চলছিল কলকাতার গান্ধীমূর্তির পাদদেশে সেই আন্দোলনে কলকাতা পুলিস এসে আন্দোলনকারীদের উপর যেভাবে লাঠিচার্জ করেছে এবং তাঁদেরকে জোরকরে গ্রেপ্তার করেছে তাঁর তিব্রভাষায় নিন্দা জানালেন ফুরফুরা শরীফ আহলে সুন্নাত ওয়াল জামাআতের কর্ণধর পীরজাদা আব্বাস সিদ্দিকী সাহেব।

উল্লেখ্য, শনিবার থেকে ওয়েস্ট বেঙ্গল রেকগনাইজ্ড আন এডেড মাদ্রাসা টিচার্স অ্যসোসিয়েশনের পক্ষ থেকে গান্ধী মূর্তির পাদদেশে অবস্থান কর্মসূচি শুরু হয়েছে। অবস্থান কর্মসূচির জন্য আর্মির পারমিশন নেওয়া হয়েছে। পারমিশন কপি লালবাজারে জমা দিতে গেলে লালবাজার তা প্রত্যাখ্যান করে। অংশগ্রহণকারী শিক্ষকদের অকুস্থলে পৌঁছানোর সাথে সাথেই পুলিশের তরফ থেকে বাধার সৃষ্টি করা হচ্ছে। এর আগেও এমত আন্দোলনে পারমিশন থাকা সত্ত্বেও পুলিশ বাধা সৃষ্টি করেছে এমন উদাহরণও রয়েছে। এর ফলে বেশ কয়েক জন শিক্ষক-শিক্ষিকা আহত হন বলে অভিযোগ।

 

আব্বাস সিদ্দিকী বলেন, বর্তমানে রাজ্যের মাদ্রাসা ও সংখ্যালঘূ উন্নয়ন মন্ত্রী ও পুলিশমন্ত্রী মুখ্যমন্ত্রী স্বয়ং তারপরেও দীর্ঘ নয় বছর ধরে মিড ডে মিলের দাবীতে এবং শিক্ষকদের বেতনের দাবীতে কেন শিক্ষকদের পথে নেমে আন্দোলন করতে হয় তাঁর জবাব মুখ্যমন্ত্রীকে দিতে হবে। তিনি ১০হাজার মাদ্রাসা অনুমোদন দেব বলে অঙ্গীকার করেছিলেন এবং ক্ষমতায় আসার ৬মাস পর বলেছিলেন সংখ্যালঘূদের ৯৯ শতাংশ কাজ করে দিয়েছেন তাহলে আজ কেন শিক্ষকদের লাঠিচার্জ করতে হল? কেন শিক্ষকরা বেতন পাচ্ছেনা?
মুখ্যমন্ত্রী মুখে সংখ্যালঘূ দরদী বলে চিৎকার করলেও আদৌ তিনি সংখ্যালঘূ দরদী নন আজকের ঘটনায় তাই আবারও প্রমান করেন। আমরা সংখ্যালঘু দরদী চাইনা আমরা চাই আমাদের সংবিধানিক অধিকার এবং সামাজিক ন্যায়। আমরা বহুদিন থেকেই বহু গন আন্দোলনের সঙ্গে যুক্ত এবং যখনই কেউ বিপদে পড়েছেন তার পাশে দাঁড়িয়েছি তাই আজ মাদ্রাসা শিক্ষক সংগঠনের নিকট আবেদন আসুন আমরা ঐক্যবদ্ধ ভাবে সরকারের অমানবিক কর্মকান্ডের প্রতিবাদ করি।

তিনি আরও জানান, ফুরফুরা শরীফ আহলে সুন্নাতুল জামাত সর্বদা হকের পথে সংগ্রাম করে এবং গরীব, অসহায়, শোষিত, লাঞ্ছিত, বঞ্ছিত মানুষের অধিকার কে প্রতিষ্ঠিত করার লক্ষে অবিচল।

Facebook Comments