নয়াপুট সুধীরকুমার হাইস্কুলের ছাত্রাবাসে আম্বেদকরের ১৩২ তম জন্ম জয়ন্তী উদযাপন

নয়াপুট সুধীরকুমার হাইস্কুলের ছাত্রাবাসে আম্বেদকরের ১৩২ তম জন্ম জয়ন্তী উদযাপন

সুব্রত গুহ, বেঙ্গল রিপোর্ট, পূর্ব মেদিনীপুর:
নয়াপুট সুধীরকুমার হাইস্কুলের ছাত্রাবাসের আম্বেদকর ভবনের সামনে বৃহস্পতিবার বিকেলে আম্বেদকর মূর্তির পাদদেশে ভারতীয় সংবিধানের অন্যতম রূপকার ডঃ ভীমরাও রামজি আম্বেদকর- এর ১৩২ তম জন্মদিবস অনাড়ম্বর ও ভাবগম্ভীর পরিবেশে উদযাপন করা হয়।

আম্বেদকর-এর আবক্ষ মূর্তিতে মাল্যদান করেন স্কুলের প্রধান শিক্ষক বসন্তকুমার ঘোড়ই। পুষ্পার্ঘ্য অর্পণ করে শ্রদ্ধার্ঘ নিবেদন করেন স্কুলের গ্রন্থাগারের গ্রন্থাগারিক সুব্রত গুহ, স্কুলের ছাত্রাবাস অধ্যক্ষ দীপক মন্ডল ও স্কুলের ছাত্রাবাস ও ছাত্রীনিবাসের আবাসিক ছাত্রছাত্রীরা। প্রধান শিক্ষক বসন্তকুমার ঘোড়ই ও গ্রন্থাগারিক সুব্রত গুহ তাঁদের বক্তব্যে আম্বেদকর-এর জীবনের নানাদিক তুলে ধরেন। তৎকালীন ভারতবর্ষে উচ্চ বর্ণের মানুষ জন ও সমাজে জাতপাতের কারনে নিম্নবর্ণের মানুষদের প্রতি সামাজিক নিপীড়ন ও অত্যাচারে নিপীড়িত অত্যাচারিত অন্ত্যজ শ্রেণির মানুষের সম মর্যাদার অধিকারের দাবিতে তথাকথিত সমাজের বিরুদ্ধে বাবাসাহেব আম্বেদকর লড়াই শুরু করে দেশের দলিল শ্রেণির মানুষদের সেই লড়াইতে যুক্ত করেছিলেন। ভারত স্বাধীন হওয়ার পর ভারতের সংবিধান রচনার খসড়া কমিটির সভাপতি হওয়া ছাড়াও আম্বেদকর ই হয়েছিলেন স্বাধীন ভারতের প্রথম আইনমন্ত্রী। ১৯৫৬সালের ৬ ডিসেম্বর তাঁর জীবনাবসান হয়। বঞ্চিত মানুষদের অধিকার আদায়ের জন্য সারাজীবন লড়াই করে যাওয়া এই মানুষটিকেও বঞ্চনার শিকার হতে হয়েছিল। তাঁর মৃত্যুর ৩৪ বছর পর ভারত সরকার ১৯৯০ সালে তাঁকে মরণোত্তর ভারতরত্ন সম্মানে সম্মানিত করে।

ছাত্রাবাসের প্রাঙ্গনে আয়োজিত জন্ম জয়ন্তী অনুষ্ঠানে ছাত্রাবাসের ছাত্ররাও আম্বেদকরের জীবন আদর্শ নিয়ে ছাত্রাবাসের তিনছাত্র পঞ্চম শ্রেণির সায়ন মন্ডল, নবম শ্রেণির মোহিত ঘোড়ই ও অষ্টম শ্রেণির ছাত্র সৌম্যদীপ নায়ক বক্তব্য রাখে।

Facebook Comments