ইংরেজী নববর্ষের প্রথমদিনে তারাপীঠে পুণ্যার্থীদের উপচে পড়া ভীড়, চলছে পিকনিক

ইংরেজী নববর্ষের প্রথমদিনে তারাপীঠে পুণ্যার্থীদের উপচে পড়া ভীড়, চলছে পিকনিক

অমলেন্দু মণ্ডল, বেঙ্গল রিপোর্ট, বীরভূম: ইংরেজি নববর্ষের প্রথম দিনেই তারাপীঠে দেখা গেল পুণ্যার্থীদের উপচে পড়া ভিড়। সারা বছরটা যাতে ভালভাবে কাটে তার জন্য বছরের প্রথম দিনে প্রচুর মানুষ মা তারার পুজো দিয়ে থাকেন। তাই প্রত্যেক ইংরেজি বছরের প্রথম দিনে ভিড় হয় তারাপীঠে।

বছরের শেষের দিকটা তারাপীঠের ‘ভরা সিজন’ হিসেবেই গণ্য করা হয়। রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্তের মানুষ পুজো দিতে আসেন। আজ কিন্তু তারাপীঠে প্রচুর জনসমাগম হয়েছে। এদিন মন্দিরে ভোর থেকে পুজো দেওয়ার লম্বা লাইন। পূজো দিয়ে মা তারার কাছে সবার একই প্রার্থনা সারা বছর যেন ভালভাবে কাটে।কলকাতার বাসিন্দা পারমিতা রায় জানান প্রতিবছরই বছরের প্রথমদিনে মায়ের কাছে আসি পুজো দিতে এবার ও ব্যতিক্রম হয়নি।
মন্দির কমিটির সভাপতি তারাময় মুখোপাধ্যায় বলেন, “বছরের প্রথম দিন পুজো করে সারা বছর যাতে ভাল কাটে সেই কামনা করেন পুণ্যার্থীরা। তাই এদিন দূরদুরান্ত থেকে বহু ভক্ত ভিড় জমিয়েছেন।

পুর্ণ্যার্থীদের জন্য অনেক রাত পর্যন্ত মন্দিরের গেট খোলা রাখা হবে আজ। পুজো দিতে এসে কেউ যেন ফিরে না যান তা লক্ষ্য রেখেই এই ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। আবার অনেকে বছরের প্রথম দিনে পিকনিকের স্পট হিসেবে তারাপীঠকে বেছে নিয়েছেন। ভিড় জমিয়েছেন তারাপীঠের উত্তরে মুণ্ডমালিনী মন্দির এলাকাতেও। সেখানেও বহু মানুষ দ্বারকা নদীর চরে পিকনিক সারছেন। রাজ্যের কৃষিমন্ত্রী আশীষ বন্দ্যোপাধ্যায় ও ইংরেজি নববর্ষের প্রথম দিনে তারাপীঠে যান স্বপরিবারে।

Facebook Comments