আন্জুমানে জমিয়তে উলামার রন্ধনগাছা শাখার উদ্যোগে বস্ত্রবিতরণ ও ইফতার মজলিস

আন্জুমানে জমিয়তে উলামার রন্ধনগাছা শাখার উদ্যোগে বস্ত্রবিতরণ ও ইফতার মজলিস

নিজস্ব সংবাদদাতা, বেঙ্গলরিপোর্ট, কামদেবপুর : ফুরফুরা দরবার শরীফের অন্যতম অরাজনৈতিক সমাজসেবামূলক সংগঠন আন্জুমানে জমিয়তে উলামার রন্ধনগাছা শাখার উদ্যোগে কামদেবপুর বাজারে সম্পন্ন হলো এক মহৎ বস্ত্রবিতরন ও ইফতার মজলিস।

এদিনের অনুষ্ঠানে এলাকার বহু মানুষ উপস্থিত ছিলেন। এদিন সংগঠনের তরফ হতে জাতি, ধর্ম নির্বিশেষে প্রায় ৩০০ জন অসহায় মানুষের হাতে বস্ত্র এবং প্রায় ১০০০ জন মানুষের হাতে ইফতার সামগ্রী তুলে দেওয়া হয়।

এদিনের অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন আন্জুমানে জমিয়তে উলামার সাধারণ সম্পাদক পীরজাদা সানাউল্লাহ সিদ্দিকী, মাওলানা রিয়াজুল ফাতেহী, হাফেজ গিয়াস উদ্দিন, মাওলানা মোস্তাকিম রহমান, খন্ড সরকরা মাদ্রাসার শিক্ষক মাওলানা মুজিবর রহমান, হাফেজ মনিরুল ইসলাম, হাফেজ সরিফুল ইসলাম, রন্ধনগাছা শাখা কমিটির সভাপতি হাফেজ ঈসমাইল, জনাব নাজমুল সাহেব, জনাব আবিদ সাহেব সহ সংগঠনের অন্যান্য কর্মকর্তগন এবং এলাকার বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ।

অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন পীরজাদা সানাউল্লাহ সিদ্দিকী সাহেব। তিনি এদিন সমাজসেবামূলক কাজের পাশাপাশি এলাকায় শান্তি ও সম্প্রীতি রক্ষার আহ্বান জানান। তিনি বলেন, “পবিত্র রমজান মাসে রন্ধনগাছা শাখার উদ্যোগে এই বস্ত্রদান ও ইফতারের অনুষ্ঠানে বহু গরীব ও দুস্থ মানুষ উপকৃত হবেন। এইরকম সমাজসেবামূলক কাজ সারা পশ্চিমবঙ্গে আমাদের এই সংগঠনের তরফে হয়ে থাকে এবং ভবিষ্যতে আরও বেশি করে করা হবে।”

তিনি আরও বলেন, “বর্তমানের কিছু অসৎ চরিত্রের রাজনৈতিক নেতারা নিজেদের স্বার্থে বিভেদমূলক বক্তব্য থেকে মানুষদের মধ্যে বিভেদ সৃষ্টি করার চেষ্টা করেন এবং ধর্মীয় বিভেদমূলক কাজে উস্কানি দেন। কিন্তু বর্তমানে নিজেদের গদি বাঁচাতে সমস্ত কিছুর উর্ধ্বে গিয়ে ভারতবর্ষের গনতন্ত্র ধ্বংস করে ইভিএমের কারচুপি করছে, যা ভারতের ইতিহাসে এক লজ্জাজনক ইতিহাস তৈরী করছে “।

পীরজাদা আরো বলেন,” ভারতবর্ষ সম্প্রীতির দেশ। এখানে যুগ যুগ ধরে মানুষ শান্তি ও ভালোবাসা নিয়ে বেঁচে আছেন। কিন্তু বর্তমানে সেই সম্প্রীতি বিপন্ন। আমাদের সকলকে এই কঠিন সময়ে হিন্দু মুসলিম শিখ জৈন সহ সমগ্র সম্প্রদায়ের মানুষকে একসাথে বাস করতে হবে এবং সাম্প্রদায়িক শক্তিকে পরাভূত করতে হবে। “

Facebook Comments