ডেউচা গৌরাঙ্গিনী বিদ্যালয় প্রাঙ্গনে অষ্টম বার্ষিকী জঙ্গল মহল উৎসবের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে অনুব্রত মণ্ডল

ডেউচা গৌরাঙ্গিনী বিদ্যালয় প্রাঙ্গনে অষ্টম বার্ষিকী জঙ্গল মহল উৎসবের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে অনুব্রত মণ্ডল

অমলেন্দু মণ্ডল, বেঙ্গল রিপোর্ট, বীরভূম: সোমবার বীরভূম জেলার মহম্মদ বাজার ব্লকের ডেউচা গৌরাঙ্গিনী উচ্চ বিদ্যালয় প্রাঙ্গনে উৎসবের সূচনা হয়। উৎসবের জেলার প্রাচীন ঐতিহ্যবাহী সংস্কৃতি আদিবাসী নৃত্য ও সঙ্গীতের সঙ্গে বাউল গান অনুষ্ঠিত হয়।

জেলার বিভিন্ন ব্লকের আদিবাসী শিল্পীদের পাশাপাশি কলকাতা সহ রাজ্যের বিভিন্ন আদিবাসী আধুনিক লোক সঙ্গীত ও শিল্পীরা অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করেন। জেলার প্রায় চল্লিশটির বেশি আদিবাসী সংস্কৃতি দল অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করে। উৎসব প্রাঙ্গণে কুড়িটি সরকারি স্টল রয়েছে। এই গুলিতে রাজ্য সরকারের বেশ কয়েকটি প্রকল্প যেমন কন্যাশ্রী, রূপশ্রী পাশাপাশি অনুসন্ধান কেন্দ্র খোলা হয়েছে। এলাকার সাধারণ মানুষের ভিড় চোখে পড়েছে এই অনুষ্ঠানে এখানেও ডেউচা পাঁচামি সংক্রান্ত বিষয়ে স্টল থেকে উত্তর দেওয়া হচ্ছে।

পৌষ পার্বণে বিশেষ সময়ে এই উৎসব হচ্ছে বলে বিভিন্ন স্বনির্ভর গোষ্ঠীর মহিলারা স্টল থেকে পিঠেপুলি বিক্রি করছেন এই মেলায়। করণ রাজ্য সরকারি নির্দেশ অনুযায়ী করোনা স্বাস্থ্যবিধি বজায় রেখে এ ব্যবস্থা প্রশাসন থেকে করে দেওয়া হয়েছে।বীরভূম জেলা জঙ্গলমহল উৎসব এই প্রথম এই বিদ্যালয় মাঠে অনুষ্ঠিত হচ্ছে তিন দিন ধরে চলবে এই উৎসব। বেশ কিছু আদিবাসী শিল্পীকে এই দিন অনুষ্ঠান মঞ্চ থেকে ধামসা মাদল দেওয়া হয়। বেশ কিছু মানুষকে তপশীল উপজাতির শংসাপত্র সরকারের তরফ থেকে দেওয়া হয়।

উপস্থিত ছিলেন জেলা শাসক বিধান রায়, ডাব্লিউ, পি এস আর, ডি এ র চেয়ারম্যান অনুব্রত মণ্ডল, বিধায়ক অভিজিৎ সিংহ, বিধায়ক বিকাশ রায় চৌধুরী, সাংসদ শতাব্দী রায়, মন্ত্রী চন্দ্রনাথ সিনহা, সাংসদ অসিত মাল, বিধায়ক নীলাবতী সাহা সহ বহু আদিবীসী নেতৃত্ববৃন্দ। জেলার দশটি আদিবাসী অধ্যুষিত ব্লক এলাকার কলা ও সংস্কৃতিক ব্যক্তিত্বরা, অনুষ্ঠান পরিবেশন করেন।

Facebook Comments