বিশেষজ্ঞের পরামর্শে গাপ্পি মাছ চাষ করে উপকৃত রেফাত শেখ: বিস্তারিত দেখুন

বিশেষজ্ঞের পরামর্শে গাপ্পি মাছ চাষ করে উপকৃত রেফাত শেখ: বিস্তারিত দেখুন

নিজস্ব প্রতিনিধি, বেঙ্গল রিপোর্ট, মুর্শিদাবাদ: মুর্শিদাবাদ জেলার নবগ্রাম ব্লকের অধীন খাজুরিয়া গ্রামের মধ্যবয়সী কৃষক তথা জল ব্যবহারকারী সমিতির সদস্য রেফাত সেখ। নিদারুন দারিদ্রতার কারণে তৃতীয় শ্রেণীর পরেই পড়াশোনা ছাড়তে বাধ্য হন রেফাত। ছোট বেলা থেকেই জীবিকার তাগিদে পারিবারিক কৃষি কাজের সাথে জড়িয়ে পড়েন। কুড়ি বছর বয়সে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন। বর্তমানে তিন কন্যা সন্তানের পিতা রিলায়েন্স ফাউন্ডেশনের কারিগরি পরামর্শে কৃষির পাশাপাশি একজন সফল মৎস্যজীবী হিসেবে আত্মপ্রকাশ করেছেন। যদিও কাজটি সাজসাধ্য ছিল না। প্রাথিমক ভাবে মাছ চাষ শুরু করলেও জলের সমস্যা এবং মাছ চাষের কারিগরি বিষয়গুলি রপ্ত না করার ফলে বারবার ক্ষতির সম্মুখীন হয়েছিলেন, পরবর্তী কালে জলসম্পদ অনুসন্ধান ও উন্নয়ন দপ্তর থেকে “আদমি” প্রকল্পে জল ব্যবহারকারী সমিতি গঠন করে জলের সমস্যার সমাধান করেন। ধীরে ধীরে রেফাত ভাই জল ব্যবহারকারী সমিতির মাধ্যমে লাভজনকভাবে মাছ চাষ করতে শুরু করেন। সমিতির কাজেও ধীরে ধীরে গতি আসে।

সমিতির কাজে খুশি হয় “আদমি” প্রকল্প থেকে গাপ্পি মাছের একটি প্রকল্প অনুমোদন করা হয়। কিন্তু গাপ্পি মাছ চাষের কোনো পূর্ব অভিজ্ঞতা না থাকায় সমস্যায় পড়েন রেফাত এবং সমিতির অন্য সদস্যরা। এর মধ্যে রেফাতের সাথে পরিচয় হয় রিলায়েন্স ফাউন্ডেশনের প্রতিনিধি হেদায়েতুল্লা শেখের সাথে এবং জানতে পারেন  রিলায়েন্স ফাউন্ডেশনের টোল ফ্রি হেল্পলাইন পরিষেবা ১৮০০ ৪১৯ ৮৮০০ নম্বর কথা। আর সময় নষ্ট না করে রেফাত যোগাযোগ করেন রিলায়েন্স ফাউন্ডেশনের মৎস্য বিশেষজ্ঞের সাথে এবং তাঁর পরামর্শ মতো হাপা তৈরির কারিগরি দিক সহ গাপ্পি মাছ চাষের সম্পূর্ণ প্রক্রিয়াটি রপ্ত করে ফেলেন।

পাশাপাশি মাছের স্বাস্থ্য বিধি অনুসারে খাদ্যের পরিমান বৃদ্ধি, পরিপূরক খাবার হিসেবে দানা খাবার, জৈব জুস তৈরির পদ্ধতিও করায়ত্ত করে ফেলেন। ফলস্বরূপ দুই মাসের মধ্যে প্রায় ৭০০০০ গাপ্পি মাছ চাষ করে প্রায় ৪৬০০০/- টাকা মুনাফা অর্জন করেন রেফাত ভাই এর সমিতি। আজ মাছ চাষ সহ যে কোনো কৃষি সংক্রান্ত সমস্যায় রিলায়েন্স ফাউন্ডেশনের বিশেষজ্ঞদের সাথে পরামর্শ করে সহজেই সমস্যার সমাধান করে নেন রেফাত।

তাঁর কথায় “রিলায়েন্স ফাউন্ডেশনের বিশেষজ্ঞদের পরামর্শ এবং ফিল্ড কর্মী হেদায়েতুল্লা ভাইয়ের সহায়তায় আজ আমি শুধু সফল মৎস্যজীবীই নই, বেড়েছে আত্মবিশ্বাস – কারণ যে কোনো সমস্যায় পাশে আছে রিলায়েন্স ফাউন্ডেশন টীম”।

Facebook Comments