সরকারি বিধিনিষেধ মেনেই ঈদ উল আযহা উৎযাপন করুন: পীরজাদা তামিম সিদ্দিকী

আল ফারাহ মিশনের সাধারণ সম্পাদক, ফুরফুরা শরীফের পীরজাদা তামিম উদ্দিন সিদ্দিকী সাহেব।

সরকারি বিধিনিষেধ মেনেই ঈদ উল আযহা উৎযাপন করুন: পীরজাদা তামিম সিদ্দিকী

আরিফুল ইসলাম, ফুরফুরা শরীফ হুগলী: বিশ্বের মুসলমানদের সবচেয়ে বড় আত্মত্যাগের দিন ঈদুল আযহার দিন। সাধারণত আরবি মাসের জিলহজ্জ মাস চাঁদ অনুযায়ী ১০-১১ ও-১২ তারিখ ঈদুল আযহা অর্থাৎ কুরবানী পালন করে থাকেন মুসলিম ধর্মপ্রাণ মানুষেরা। এবছর করোনা কালে ঈদুল আযহা উৎসব কিভাবে পালন হবে সে বিষয়ে উনবিংশ শতাব্দীর মোজাদ্দেদ ফুরফুরা শরীফে পীর দাদা হুজুর পিরকেবলা রহ: এর দ্বিতীয় বাড়ি সীতাপুর দরবার শরীফে আল ফারাহা মিশনের সাধারণ সম্পাদক তথা ফুরফুরা শরীফের পীরজাদা মাওঃ মোঃ তামিম উদ্দিন সিদ্দিকী একটি এক সংক্ষিপ্ত বিবৃতিতে বলেন।

গত বছরেও করোনা মহামারীতে কেটেছে প্রবিত্র ঈদুল আযহা। পরিপূর্ণ লকডাউন থাকাকালীন ঈদগাহ ময়দানে জমায়েত করে উদযাপিত হয়নি পবিত্র ঈদুল ফিতর ও ঈদুল আযহার নামাজ। এবছরে করোনা ভাইরাসের প্রকোপ কম থাকায় আংশিক লকডাউন ও বিধি নিষেধ ঘোষণা করেছে পশ্চিমবঙ্গ সরকার। রাজ্য জুড়ে বিধিনিষেধের কারণে বিভিন্ন ধর্মীয় ও রাজনৈতিক উৎসব থেকে শুরু করে বিবাহ- শেষকৃত্য এবং সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান জমায়েত করে হচ্ছে না। সেই দিকে নজর রেখে বঙ্গীয় মুসলিম উম্মাহর কাছে আমার অনুরোধ, সরকারের নির্দেশকে মান্যতা দিয়ে আসন্ন পবিত্র ঈদুল আযহা অনুষ্ঠান উদযাপিত করুন।

বিশেষ করে মসজিদের ইমামের কাছে আমার অনুরোধ আপনারা নিজ দায়িত্বে নিজ এলাকার মানুষদের সচেতন করুন। প্রয়োজনে নিকটবর্তী থানার ভারপ্রাপ্ত আধিকারিক দের সাথে যোগাযোগ করুন। সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে ঈদ উল আযহার নামাজ আদায় করুন। এবং ঈদ উল আযহা উৎসব পালনের মধ্যে দিয়ে জনমানুষের মধ্যে ঐক্য-একতা-শান্তি-সম্প্রীতি বার্তা ফুটিয়ে তুলুন।

মনে রাখতে হবে আমার উৎসব পালনে অপর কোনো ব্যক্তি বা গোষ্ঠী কষ্ট না পায়। এটা ইসলাম ধর্মে কঠোর ভাবে নিষেধ আছে। ধর্মাম্বলী মুসলমান ভাইদের কাছে আমার অনুরোধ, প্রবিত্র ঈদ উল আযহার নামাজের পর বিশ্ব শান্তি ও করোনা মারামারি থেকে মুক্তি চেয়ে আল্লাহ তায়ালার কাছে দোয়া ও প্রার্থনা করি।

Facebook Comments