করোনা মুক্ত হলেন রাজ্যের পরিবহন সেচ ও জলসম্পদ মন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারী

করোনা মুক্ত হলেন রাজ্যের পরিবহন সেচ ও জলসম্পদ মন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারী

 সুব্রত গুহ, বেঙ্গল রিপোর্ট, পূর্ব মেদিনীপুর: রাজ্যের লক্ষ লক্ষ গুনমুগ্ধ ও শুভাকাঙ্খিদের প্রার্থনা সফল করে পরিবহণ ও সেচ জলসম্পদ মন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারী মারামারি ভাইরাস ‘করোনা’ জয়ী হলেন। উল্লেখ্য গত ২৪ সেপ্টেম্বর তাঁর শরীরে করোনা ভাইরাসের উপস্থিতি পাওয়া যায়।

মন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারীর করোনা পরীক্ষার রিপোর্ট।

কাঁথির অধিকারী পরিবার সূত্রে খবর, তেমন কোনও উপসর্গ না থাকলেও দিন কয়েক আগে সন্দেহ হওয়ায় শুভেন্দু অধিকারী করোনা পরীক্ষা করান। ২৪ তারিখ সন্ধেবেলা সেই পরীক্ষার রিপোর্ট পজিটিভ আসে। জানা গিয়েছে, এদিনই হলদিয়ায় তাঁর একটি কর্মসূচি ছিল। কিন্তু তাতে যোগ দেননি শুভেন্দু অধিকারী। এরপর সন্ধেবেলা রিপোর্ট পেতেই কোলাঘাটের একটি সরকারি গেস্ট হাউসে তিনি আইসোলেশনে চলে যান।

প্রসঙ্গত প্রথমে শুভেন্দুবাবুর ভাইপো করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হন। তার পর কোভিডে আক্রান্ত হন শুভেন্দুবাবুর বড় ভাই। বর্তমানে তাঁরাও সুস্থ। বাংলায় করোনাভাইরাসের সংক্রমণের পর শাসক দলের যে ক’জন বড় নেতাকে মাঠে নেমে মানুষের পাশে দাঁড়াতে দেখা যায় তাঁর মধ্যে শুভেন্দু বাবু ছিলেন অন্যতম। এছাড়াও সারা বছর ধরে তিনি মানুষের বিপদে আপদে তাঁদের পাশে থাকেন। শুভেন্দুবাবু করোনা আক্রান্ত হওয়ায় আতঙ্ক দানা বেঁধে ছিলো তাঁর লক্ষ লক্ষ গুনমুগ্ধ ও শুভাকাঙ্খিদের মনে।

অন্যদিকে রাজ্যের পরিবহণ, সেচ ও জলসম্পদ মন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারী করোনা মুক্তির খবরে খুশীর হাওয়া রাজ্য জুড়ে। তাঁর ও তাঁর মায়ের সুস্থতা কামনা করে রাজ্য জুড়ে মন্দির-মসজিদ-গীর্জা সহ বিভিন্ন ধরনের ধর্মীয় স্থানে পুজার্চনা শুরু করেছিলো তাঁর গুনমুগ্ধরা। আজ শুভেন্দু বাবুর সুস্থ হয়ে ওঠার খবর পেয়ে তারা সকলেই খুশী।

জানা গেছে আজ তিনি ফের পূর্ব মেদিনীপুর জেলার পাঁশকুড়া সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালে তাঁর করোনা পরীক্ষা করান। সেই রিপোর্ট নেগেটিভ আসে।

Facebook Comments