কলকাতার ৭১ বয়সী বৃদ্ধা করোনায় সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরলেন, বৃদ্ধাকে ফুল-মিষ্টি দিয়ে অভিনন্দন

কলকাতার সত্তরোর্ধ্ব বৃদ্ধা করোনায় সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরলেন, বৃদ্ধাকে ফুল-মিষ্টি দিয়ে অভিনন্দন

বেঙ্গল রিপোর্ট ডেস্ক : করোনায় আক্রান্ত বলে মনের মধ্যে ভয় পুশে রাখলে চলবে না। বরং তাকে বুঝিয়ে দিতে হবে, সে কোনও ক্ষতি করতে পারবে না। সেভাবেই এবার করোনাকে জয় করে বাড়ি ফিরলেন যোধপুর পার্ক এলাকার সত্তরোর্ধ্ব বৃদ্ধা। বল ইচ্ছাশক্তিই করোনাকে জয় করার সবচেয়ে বড় হাতিয়ার।

গত মাসে ৭১ বছরের সীতা মণ্ডলের শরীরে মিলেছিল মারণ জীবাণু। গত ১৮ এপ্রিল বাঙ্গুর হাসপাতালে ভরতি করা হয়েছিল তাঁকে। তারপর দু’সপ্তাহেরও বেশি সময় ধরে চলে লড়াই। নোভেল করোনার চোখ রাঙানিকে জয় করে গত সোমবার সুস্থ হয়ে বাড়ি ফেরেন তিনি। তাঁকে ফুলের স্তবক, মিষ্টি, ফল আর হাততালি দিয়ে স্বাগত জানান কাউন্সিলর রতন দে।

বুধবার যোধপুর পার্কের রহিম অস্তাগার রোডের বাসিন্দা ওই বৃদ্ধার বাড়িতে পৌঁছে গিয়েছিলেন কাউন্সিলর। হাজির ছিলেন স্থানীয়রাও। জীবন যুদ্ধে জয়ী হওয়ার জন্য বৃদ্ধাকে হাততালি দিয়ে অভিনন্দন জানান প্রত্যেকে। রতন দে বলেন, “করোনা মানেই আতঙ্ক নয়। এই ভয়ংকর ভাইরাসকে হারিয়েও যে নতুন জীবনে ফেরা যায়, সেটাই বুঝিয়ে দিয়েছেন শীতা মণ্ডল। ওঁ-ই বাকিদের জন্য অনুপ্রেরণা হয়ে উঠবেন। সকলে মিলে এই ভাইরাসের মোকাবিলা করতে হবে। শীতাদেবীই সেই পথ দেখালেন।”

নার্স থেকে সাধারণ মানুষ, প্রত্যেক করোনা মুক্তকেই পুষ্পবৃষ্টি করে, হাততালি দিয়ে অভিনন্দন জানানো হয়েছে। করোনাজয়ী বা তাঁর পরিবারকে যে একঘরে করার কোনও যুক্তি নেই, সেটাই বুঝিয়ে দেওয়া হচ্ছে এভাবে। এবার যোধপুর পার্ক এলাকাতেও চোখে পড়ল একই দৃশ্য।

Facebook Comments