বাংলা সংস্কৃতির অগ্রগতি ও প্রসার, শিল্পী ও শিল্পের সংরক্ষণ, বাংলার মানুষের সার্বিক উন্নয়ন নিয়ে আলোচনা সভা

বাংলা সংস্কৃতির অগ্রগতি ও প্রসার, শিল্পী ও শিল্পের সংরক্ষণ, বাংলার মানুষের সার্বিক উন্নয়ন নিয়ে আলোচনা সভা

নিজস্ব সংবাদদাতা, বেঙ্গল রিপোর্ট, কলকাতা:
বিগত ৬ অক্টোবর, বুধবার, বিকাল ৫:৩০ মিনিটে মহালয়ার শুভ মুহূর্তে বিশিষ্ট বিজ্ঞানী সমরেন্দ্র কুমার মিত্রের বাড়িতে, (শোভাবাজার) দ্য সোসাইটি ফর কালচারাল রিসার্চ এন্ড স্টাডিস এর জরুরি সভার আয়োজন করা হয়েছিল। এই সভা মূলত সোসাইটির উপদেষ্টা পর্ষদ এবং পরিচালনা পর্ষদ কে নিয়ে। মঙ্গলদ্বীপ জ্বেলে এবং বৈদিক মন্ত্র উচ্চারণের মধ্য দিয়ে এই সভার শুভ সূচনা হয়।

এই সভায় উপস্থিত ছিলেন সোসাইটির উপদেষ্টা পর্ষদ এর বিশিষ্ট বিজ্ঞানী উমাশঙ্কর চক্রবর্তী, বিশিষ্ট অভিনেতা অরুণ ব্যানার্জী বিশিষ্ট চিত্রনাট্যকার অরুণাভ মুখার্জী, কলকাতা হাইকোর্ট এর বিশিষ্ট আইনজীবি দেবাশীষ ঘোষ, সমমিত্র মিত্র (পৃষ্ঠপোষক) সহ পরিচালন পর্ষদ এর সভাপতি স্নেহেন্দু চক্রবর্তী (চিত্রনাট্যকার-পরিচালক) সহ সভাপতি স্নিগ্ধা মিত্র মুখার্জী (প্রযোজক সাংবাদিক, সংগীত শিল্পী), সম্পাদক পবন কুমার লাল (অভিনেতা), সদস্য সুদীপ রায় (অভিনেতা) নৃত্য নির্দেশক বিশ্বজিৎ চক্রবর্তী।

উক্ত সভার আলোচনার বিষয় ছিল বাংলা সংস্কৃতির অগ্রগতি ও প্রসার, শিল্পী ও শিল্পের সংরক্ষণ, বাংলার মানুষের সার্বিক উন্নয়ন। সোসাইটির অন্যতম অরুণ ব্যানার্জী বলেন আমি অথবা আমরা এই কজন মিলে বা আরও দশজন মিলে বাংলা সংস্কৃতির কিছু করতে পারব না, যদি না আমরা বাঙালির মনে জাগাতে পারি, আমাদের আরও উন্নত হতে হবে –এই বোধটা। যারা আমাদের বাংলা সংস্কৃতির পুরোধা, তাদের মধ্যে একজন সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়, এবং তাঁর পরে যে বা যারা আছেন, বাংলা সংস্কৃতিকে আরও এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করছেন, তাঁদের খুঁজে বার করতে হবে। কিন্তু এরকম নাম করেছেন এমন ব্যক্তি , বাংলা সংস্কৃতিকে আরও এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করেছেন, এরকম লোকের সংখ্যা কমে গেছে বা প্রায় নেই। সেখানে সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়কে স্বীকার করা সেটাও বোধ হয় বাঙালির চেতনাকে কোথাও আঘাত দেওয়া হয়। তাই সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়ের মূর্তির উদ্যোগ নেওয়া আমাদের সংস্থার দায়িত্ব কর্তব্যের মধ্যে পরে।

এছাড়াও একটা সাহিত্য পত্রিকা/লিটল ম্যাগাজিন প্রকাশ করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। সভা শেষ হয় স্নিগ্ধা মিত্র মুখার্জীর শারদীয়ার সঙ্গীত এবং সভাপতির স্বরচিত কবিতার মধ্য দিয়ে।

Facebook Comments