বীরভূমের খয়রাশোল ব্লকের নওপাড়া গ্রামে শারদ উৎসবে সম্প্রীতির বস্ত্র বিতরণ

বীরভূমের খয়রাশোল ব্লকের নওপাড়া গ্রামে শারদ উৎসবে সম্প্রীতির বস্ত্র বিতরণ

সেখ রিয়াজুদ্দিন, বেঙ্গল রিপোর্ট, বীরভূম:-“ধর্ম যার যার উৎসব সবার” -সেই উৎসবের কথা মাথায় রেখে বাঙালির শ্রেষ্ঠ উৎসব দূর্গোৎসবের মহা সপ্তমীর সকালে বীরভূম জেলার খয়রাশোল ব্লকের নওপাড়া গ্রামে প্রায় দেড়শত পরিবারের হাতে তুলে দেওয়া হয় নতুন বস্ত্র।

মুসলিম অধ্যুষিত এই গ্রামের কতিপয় যুবকের উদ্যোগে এবং নওপাড়া তৃনমূল কংগ্রেসের দুটি বুথ কমিটির সহযোগিতায় অসহায় দুস্থদের মধ্যে নতুন বস্ত্র বিতরণ করা হয়। করোনা আবহে এবছর অনেকের জীবনে জীবিকার ব্যাঘাত ঘটছে।জীবনের স্বাভাবিক ছন্দ ফিরতে না ফিরতেই দূর্গোৎসবের ভাবনা, সেই ভাবনা লাঘবে এগিয়ে আসে কতিপয় মুসলিম যুবক। এলাকায় সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বজায় রাখার এক নজির স্থাপন করে আজকের অনুষ্ঠান। মুসলিম অধ্যুষিত গ্রামে তপশীলি সম্প্রদায়ের ও কিছু পরিবারের বসবাস, সেই সমস্ত পরিবারের কথা চিন্তা করে এবং সেই প্রচেষ্টায় ঘটে সম্প্রীতির মেলবন্ধন।

এদিন সম্প্রীতির মেলবন্ধন অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন খয়রাশোল পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি শ্যামল গায়েন, নাকড়াকোন্দা অঞ্চল তৃনমূল কংগ্রেসের সভাপতি বিকাশ ঘোষ, স্থানীয় সমাজসেবী কাঞ্চণ দে, নাকড়াকোন্দা গ্রাম পঞ্চায়েতের উপপ্রধান লুৎফর রহমান সহ প্রমুখ বিশিষ্ট ব্যাক্তিবর্গ।

সাংস্কৃতি প্রেমী সেখ গুলজার, সমাজসেবী সেখ আব্বাস ও সেখ লতিফ প্রমুখ গ্রাম্য ব্যাক্তিদের আজকের অনুষ্ঠান নিয়ে উৎসাহ উদ্দীপনা ছিল চোখে পড়ার মতো।

উদ্যোক্তাদের পক্ষ থেকে কাঞ্চন দে এক সাক্ষাৎকারে জানান, নাকড়াকোন্দা পঞ্চায়েতের নওপাড়া গ্রামে দুই বুথের তৃনমূল কংগ্রেসের সভাপতি সেখ সালাম ও সেখ মোসারফ (দুলাল) এর প্রচেষ্টায় আসন্ন দূর্গোৎসবের আনন্দ পরস্পর উপভোগ করতে ভিন্ন সম্প্রদায়ের মাঝে বস্ত্র বিতরণ করে নজির স্থাপন করে, যাহা শুধু এই গ্রামের জন্য নয় এটা বাংলা জুড়ে তথা দেশের মধ্যে নজির, যাহা মুখ্যমন্ত্রী পরিচালিত ভাবধারার সৈনিক বলা যেতে পারে এই কর্মের জন্য।

Facebook Comments