পকসো মামলায় জেল খাটা শিল্পীর তৈরি দুর্গা প্রতিমা পূজিত হবে বালুরঘাট কেন্দ্রীয় সংশোধনাগারে

পকসো মামলায় জেল খাটা শিল্পীর তৈরি দুর্গা প্রতিমা পূজিত হবে বালুরঘাট কেন্দ্রীয় সংশোধনাগারে

জয়দীপ মৈত্র, বেঙ্গল রিপোর্ট, দক্ষিণ দিনাজপুরঃ বছরের অন্যান্য সময় মন খারাপ হলেও পুজোর কয়েকটা দিন আরোও বেশি করে মন খারাপ হয় ওদের। উঁচু প্রাচীরের নিরাপত্তা বেষ্টনীতে ঘেরা দক্ষিণ দিনাজপুরের বালুরঘাট কেন্দ্রীয় সংশোধনাগার। চার দেওয়ালে বন্দী সংশোধনাগারের আবাসিকদের মন খারাপের কথা চিন্তা করে কয়েক বছর আগে দুর্গাপুজো শুরু করেন সংশোধনাগার কতৃপক্ষ।

২০১৭ সালে ঘটনা ক্রমে পক্সো মামলায় বালুরঘাট কেন্দ্রীয় সংশোধনাগারে বন্দী জীবন শুরু হয় খুশিপুরের বাসিন্দা রাজু সরকারের। সেই সময়ই নিজের জীবনের খারাপ সময় থেকে মুক্তি পেতে সংশোধনাগারের ভেতরেই দুর্গা প্রতিমা তৈরির কাজ শুরু করেন বন্দী রাজু সরকার। তিনি বলেন, দুর্গা প্রতিমা তৈরীর পর পরই কোনো এক অলৌকিক ক্ষমতার বলে কিছুদিনের মধ্যেই জামিনে মুক্ত হন সংশোধনাগার থেকে। বর্তমানে আদালতের রায়ে সেই মামলা থেকে সম্পূর্ণ নির্দোষ প্রমাণিত হয়ে মুক্তি মিলেছে তার। সংশোধনাগার থেকে মুক্তি মিললেও প্রত্যেক বছরই দুর্গাপুজার প্রাক্কালে বালুরঘাট কেন্দ্রীয় সংশোধনাগার থেকে দুর্গা প্রতিমা তৈরীর ডাক মেলে রাজু সরকারের।

বর্তমানে বালুরঘাট কেন্দ্রীয় সংশোধনাগারে আবাসিক বন্দির সংখ্যা ৮০২ জন তাদের মধ্যে মহিলা রয়েছেন ১০১ জন এছাড়াও রয়েছে ৭ জন শিশু। একটা সময় দুর্গাপুজোর দিনগুলিতে চার দেওয়ালের মাঝে আটকে থাকা বন্দীদের মন অত্যন্ত খারাপ থাকতো। বর্তমানে সংশোধনাগারের ভেতরেই দুর্গাপূজা শুরু হওয়ায় অত্যন্ত খুশী বন্দি আবাসিকেরা। সাবেকি রূপেই একসময়কার বন্দি আবাসিক রাজু সরকারের হাতে তৈরি দুর্গা প্রতিমা এবারও পূজিত হবে বালুরঘাট কেন্দ্রীয় সংশোধনাগারে।

শিল্পী রাজু সরকারের প্রতিবেশী অভিজিৎ সরকার বলেন “আমাদের রাজুর তৈরি দুর্গা প্রতিমা বালুরঘাট কেন্দ্রীয় সংশোধনাগার একবছর পূজিত হয় আমরা অত্যন্ত খুশি।

Facebook Comments