স্বাস্থসাথী কার্ডে এক বছরের কম শিশুদের নাম না থাকলেও চিকিৎসা পরিষেবা দেওয়ার নির্দেশ

স্বাস্থসাথী কার্ডে এক বছরের কম শিশুদের নাম না থাকলেও চিকিৎসা পরিষেবা দেওয়ার নির্দেশ

সুব্রত গুহ, বেঙ্গল রিপোর্ট, পূর্ব মেদিনীপুর: রাজ্য সরকারের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের স্বপ্নের প্রকল্প স্বাস্থ্য সাথী কার্ডে ১ বছরের কম বয়সের শিশুর নাম নথিভূক্ত না থাকলে কিছু বেসরকারি হাসপাতাল ও নার্সিং হোমের বিনা খরচে চিকিৎসা পরিষেবা প্রদান নিয়ে টালবাহানার অবসান হলো।

বাঁকুড়ার এক ৬ মাসের শিশু লিভার ক্যানসারের চিকিৎসার জন্য কোলকাতার টাটা ক্যানসার হাসপাতালে কয়েকদিন আগে ভর্তি হয়। তার মায়ের নামিত স্বাস্থ্য সাথী কার্ডে শিশুটির নামের উল্লেখ না থাকায় টাটা ক্যানসার হাসপাতাল বিনামূল্যে চিকিৎসা পরিষেবা দিতে অস্বীকার করে। পিপলস ইন ডিসট্রেস সমাজসেবী সংগঠনের পক্ষ থেকে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী, স্বাস্থ্য দপ্তরের রাষ্ট্রমন্ত্রী, রাজ্য স্বাস্থ্য অধিকর্তা সহ ওয়েস্ট বেঙ্গল ক্লিনিক্যাল এস্টাবলিশমেন্ট রেগুলেটরি কমিশনের চেয়ারম্যান অবসরপ্রাপ্ত বিচারপতি অসীম কুমার বন্দ্যোপাধ্যায় কে ই-মেইল বার্তা পাঠিয়ে অবিলম্বে ক্যানসার আক্রান্ত ৬ মাসের শিশুর বিনা খরচে চিকিৎসা পরিষেবা সুনিশ্চিত করার আবেদন জানান সম্পাদক ও সাংবাদিক সুকুমার মিত্র, গৌতম দাশ, মামুদ হোসেন প্রমুখ কর্মকর্তাগণ।

পূর্ব মেদিনীপুর জেলার উপদেষ্টা মামুদ হোসেন বলেন রাজ্য সরকার স্বাস্থ্য কার্ডে নাম নথিভূক্ত না থাকা উপরোক্ত ক্যান্সার আক্রান্ত ৬ মাসের শিশুর বিনামূল্যে চিকিৎসা পরিষেবা দেওয়ার জন্য টাটা ক্যানসার হাসপাতাল কে নির্দেশ প্রদান করেন। স্বাস্থ্য দপ্তরের নির্দেশ মত স্বাস্থ্য সাথী কার্ডে মায়ের নাম নথিভূক্ত থাকলেই ১ বছর পর্যন্ত শিশুর নাম উল্লেখ না থাকলেও স্বাস্থ্য সাথী প্রকল্পের সুযোগ সুবিধা দিতে বেসরকারি হাসপাতাল ও নার্সিং হোম বাধ্য থাকবে বলে জানান মামুদ হোসেন।

Facebook Comments