না ফেরার দেশে পাড়ি দিলেন উড়ন্ত শিখ মিলখা সিং

না ফেরার দেশে পাড়ি দিলেন উড়ন্ত শিখ মিলখা সিং

সুব্রত গুহ, বেঙ্গল রিপোর্ট: চির ঘুমের দেশে পাড়ি দিলেন উড়ন্ত শিখ মিলখা সিং। করোনা আক্রান্ত হয়ে শেষ নিশ্বাস ত্যাগ করলেন কিংবদন্তী এই দৌড়বিদ। বয়স হয়েছিল ৯১ বছর। শুক্রবার রাতে চন্ডীগড়ের হাসপাতালে প্রয়াত হন তিনি। মিলখা সিংয়ের স্ত্রী নির্মল কৌর পাঁচ দিন আগে করোনা আক্রান্ত হয়ে প্রয়াত হন। তিনিও কোভিডে আক্রান্ত হয়েছিলেন। ১৯৫৮ সালের কমনওয়েলথ গেমস চ্যাম্পিয়ন হয়েছিলেন ‘উড়ন্ত শিখ’ মিলখা। ১৯৬০ সালে রোম অলিম্পিকে ভারতের প্রতিনিধিত্ব করেন। সেখানে চতুর্থ হয়ে অল্পের জন্য পদক পাননি। এশিয়ান গেমসেও ৪টি সোনা আছে মিলখার। ১৯৫৯ সালে পদ্মশ্রী সম্মান দেওয়া হয় তাঁকে।

গত ২০ মে কোভিডে আক্রান্ত হন। বাড়ির এক কাজের লোকের মাধ্যমে সংক্রমিত হন মিলখা এবং তাঁর স্ত্রী। চার দিন পরে ২৪ মে মোহালির হাসপাতালে ভর্তি করা হয় তাঁকে। ৩০ মে হাসপাতাল থেকে ছাড়া পান। কিন্তু ৩ জুন শরীরে অক্সিজেনের মাত্রা কমে যাওয়ায় পিজিআইএমইআর-এর নেহরু হাসপাতালে ভর্তি করাতে হয় মিলখাকে। বৃহস্পতিবার তাঁর কোভিড পরীক্ষার ফল নেগেটিভ আসে। কোভিড আইসিইউ থেকে তাঁকে সাধারণ আইসিইউ-তে স্থানান্তরিত করা হয়। কিন্তু শেষ পর্যন্ত চিকিৎসকদের যাবতীয় চেষ্টা ব্যর্থ করে না ফেরার দেশে চলে গেলেন উড়ন্ত শিখ মিলখা সিং।

রেখে গেলেন এক ছেলে জীব মিলখা সিং ও তিন মেয়ে মোনা সিংহ, আলিজা গ্রোভার এবং সোনিয়া সানওয়ালকাকে। মিলখা সিংয়ের মৃত্যুতে দেশের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী, রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় গভীর শোক প্রকাশ করেছেন। প্রবীণ ক্রীড়াবিদের মৃত্যুতে শোকস্তব্ধ দেশের ক্রীড়া জগত।

Facebook Comments