হিন্দু বউমার সাধ দিলেন মুসলিম পরিবার: অনুষ্ঠানে দু-ধর্মের মানুষের মধ্যে ছিল না কোনও ভেদাভেদ

হিন্দু বউমার সাধ দিলেন মুসলিম পরিবার: অনুষ্ঠানে দু-ধর্মের মানুষের মধ্যে ছিল না কোনও ভেদাভেদ

বেঙ্গল রিপোর্ট ডিজিটাল ডেস্ক: বাস্তব জীবনে তানিষ্কের বিজ্ঞাপন নিয়ে ধর্মের কচকচানি যখন তুঙ্গে, ঠিক তখনই রিয়েল লাইফে সাম্প্রদায়িক সমন্বয়ের নজির গড়লেন এক হিন্দু-মুসলিম দম্পতি।  ধর্মের বিবেধের জেরে গলা টিপে মারা হল শিল্প স্বত্তাকে, এমনটাই বলছে সোশ্যাল মিডিয়ার নিরপেক্ষ দল। আবার অনেকে দুই ধর্মের কাপড় টেনে মন্তব্য করছে ‘ওরা এমনটা করে দেখাক তো দেখি’।

সোশ্যাল মিডিয়ায় কথার মার প্যাঁচে ধর্মের জাঁতাকলে পিষে গেল তানিষ্কের বিজ্ঞাপন। এ দেশে এমন বিজ্ঞাপন তৈরির দুঃসাহস মানতে নারাজ একাংশ। আবার অনেকে সেই দুঃসাহসের গুণগান গেয়েছে। কিন্তু, বিজ্ঞাপনে দেখানো এই ঘটনা যে একেবারেই ভুল নয়, আর্টিফিসিয়াল ইন্টেলিজেন্সের সময় যে এমন ঘটনা এ দেশেই ঘটতে পারে, তা দেখিয়ে দিল এক হিন্দু-মুসলিম দম্পতি।

বিজ্ঞাপন তুলে নিয়ে ক্ষমা চেয়েছে তানিষ্ক। তাই নিয়েও উঠেছিল মন্তব্যের ঝড়। অন্যদিকে, তানিষ্কের শো-রুমে হামলাও করে ধর্ম প্রিয় মানুষের একাংশ। কিন্তু, এই ঘটনা যে কতটা গুরুত্বহীন তা চোখে আঙুল দিয়ে বুঝিয়ে দিল অভিনেতা-পরিচালক রাসিকা আগাশে এবং অভিনেতা মহম্মদ যেশান আয়ুব।

তানিষ্কের ঘটনার পরই সোশাল মিডিয়ায় নিজের সাধের ছবি তুলে ধরেন রাসিকা। হিন্দু ধর্ম মতে হচ্ছে তাঁর সাধ। এই অনুষ্ঠানে পরিকল্পনা করেন  মহম্মদ যেশান আয়ুবের পরিবার।অনুষ্ঠানে দু-ধর্মের মানুষের মধ্যে ছিল না কোনও ভেদাভেদ। তানিষ্কের বিজ্ঞানের বাস্তবায়ন যাকে বলে।

Facebook Comments