আইসিসি চেয়ারম্যানের পদ ছাড়লেন শশাঙ্ক মনোহর, জল্পনা পরবর্তী চেয়ারম্যান সৌরভ গাঙ্গুলী

আইসিসি চেয়ারম্যানের পদ ছাড়লেন শশাঙ্ক মনোহর, জল্পনা পরবর্তী চেয়ারম্যান সৌরভ গাঙ্গুলী

বেঙ্গল রিপোর্ট, ডিজিটাল ডেস্ক: আইসিসি চেয়ারম্যানের পদ ছাড়লেন শশাঙ্ক মনোহর, বিসিসিআই প্রেসিডেন্ট সৌরভকে নিয়ে জল্পনা  আইসিসির চেয়ারম্যান হওয়ার।

সংবাদসূত্রে খবর, মেয়াদ বাড়াতে আর আগ্রহী নন বলে জানিয়েছিলেন তিনি।আগামী সপ্তাহেই ঠিক হবে নতুন চেয়ারম্যান নির্বাচনের দিনক্ষণ। ইতিমধ্যেই এই পদের জন্যে আগ্রহ প্রকাশ করেছেন কলিন গ্রেভস এবং ডেভ ক্যামেরন। দু’বার আইসিসি চেয়ারম্যান পদে ছিলেন ভারতীয় ক্রিকেটের প্রাক্তন সভাপতি শশাঙ্ক মনোহর। বুধবারই তাঁর মেয়াদ শেষ হয়। এরপরই ICC প্রধানের পদ ছেড়ে দেন তিনি। আগে থেকেই অবশ্য তিনি জানিয়ে রেখেছিলেন, আর আইসিসি চেয়ারম্যান পদে থাকতে চান না।

আগামী সপ্তাহেই পরবর্তী চেয়ারম্যান নির্বাচনের দিনক্ষণ ঘোষণা করা হতে পারে। আর সেই সূত্রেই বারবার উঠে আসছে সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ের নাম। তাহলে এবার কি বিসিসিআই প্রেসিডেন্ট সৌরভ আইসিসির চেয়ারম্যান পদে বসবেন? ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের সভাপতি হিসেবে সৌরভের কাজকর্মে মুগ্ধ ক্রিকেট মহল। ইতোমধ্যে তাঁকে ICC প্রধানের দায়িত্বে দেখতে চেয়েছেন প্রাক্তন ক্রিকেটার ডেভিড গাওয়ার, দক্ষিণ আফ্রিকান তারকা গ্রেম স্মিথরা।

বোর্ড সূত্রে খবর, প্রাক্তন ইসিবি চেয়ারম্যান কলিন গ্রেভস এবং ভারতীয় বোর্ড প্রেসিডেন্ট সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়, এই দুজনই আইসিসির চেয়ারম্যান হওয়ার দৌঁড়ে রয়েছেন। তবে সূত্রের খবর, চেয়ারম্যান পদে বসতে এই দুজনের কেউই নির্বাচন চাইছেন না। সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ের মনোনয়ন অবশ্য এখনও চূড়ান্ত নয়। এই পরিস্থিতিতে অবশ্য কলিন ও সৌরভ, দুজনেই চাইছেন শীর্ষ পদে সর্বসম্মতিক্রমে প্রার্থী হতে।

তবে, সৌরভের চেয়ারম্যান পদে বসার আগে কিছু জটিলতা রয়েছে। বিসিসিআই প্রেসিডেন্ট সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায় ও সচিব জয় শাহের কুলিং অফ পিরিয়ড যাতে তুলে নেওয়া হয়, সেজন্য বোর্ডের তরফে সুপ্রিম কোর্টে আবেদন করা হয়েছিল। সেই বিষয়টি নিয়ে এখনও চূড়ান্ত ফয়সালা হওয়া বাকি।

তবে, জনপ্রিয়তায় কলিনকে পিছনে ফেলে দিয়েছেন সৌরভ। দিনকয়েক আগেই সৌরভের প্রশংসা করে ডেভিড গাওয়ার বলেন, ‘সৌরভের সব চেয়ে বড় গুণ, ও খুব ভালো মানুষ। ওর মধ্যে ভীষণ ইতিবাচক মানসিকতা রয়েছে। এটাই ওকে অনেকটাই এগিয়ে রাখবে অন্যদের চেয়ে। পরামর্শ নেওয়ার ক্ষেত্রে ও কখনও পিছিয়ে যায় না। এটা ওর স্বভাব। সবার সঙ্গে কথা বলেই ও সঠিক সিদ্ধান্ত নেয়।’ অপরদিকে, গ্রেম স্মিথ বলেন, ‘ICC-র শীর্ষ পদে সঠিক ব্যক্তির বসা অত্যন্ত জরুরি।’ আর সেই পরিপ্রেক্ষিতে সৌরভই যে অত্যন্ত যোগ্য ব্যক্তি, সে কথাও স্বীকার করে নেন স্মিথ।

তবে, জনপ্রিয়তায় কলিনকে পিছনে ফেলে দিয়েছেন সৌরভ। দিনকয়েক আগেই সৌরভের প্রশংসা করে ডেভিড গাওয়ার বলেন, ‘সৌরভের সব চেয়ে বড় গুণ, ও খুব ভালো মানুষ। ওর মধ্যে ভীষণ ইতিবাচক মানসিকতা রয়েছে। এটাই ওকে অনেকটাই এগিয়ে রাখবে অন্যদের চেয়ে।

আইসিসি সূত্রে জানা গিয়েছে, গত ২৬ জুন যে বৈঠক হয়েছিল আইসিসির, তাতেই ঠিক হয়েছিল জুলাইয়ের প্রথম সপ্তাহেই বিষয়টি চূড়ান্ত হয়ে যাবে। আপাতত শশাঙ্ক মনোহরের জায়গার অন্তর্বর্তী চেয়ারম্যান হিসেবে দায়িত্ব সামলাবেন ডেপুটি চেয়ারম্যান ইমরান খাওয়াজা।

Facebook Comments