বীরভূমে শ্রমজীবী মানুষদের স্বার্থে “চলমান চেম্বার” রাতেও পরিষেবা প্রদান অব্যাহত

বীরভূমে শ্রমজীবী মানুষদের স্বার্থে “চলমান চেম্বার” রাতেও পরিষেবা প্রদান অব্যাহত

সেখ রিয়াজ উদ্দিন, বেঙ্গল রিপোর্ট, বীরভূম: একদিকে করোনার প্রকোপ তো অন্যদিকে রুটি রুজির টান। গত বছর থেকে লকডাউনের ফলে দিন আনা দিন খাওয়া মানুষের অবস্থা খারাপ হচ্ছে।তাই কাজের সন্ধানে মানুষ হন্যে হয়ে ঘুরে বেড়াচ্ছে কিম্বা কাজের বাছ বিচার না করে যে কোন কাজে লেগে পড়ছে। সেই সমস্ত ব্যাক্তিদের কথা চিন্তা ভাবনা করে তাদের সুবিধার্থে এক প্রকার বলা যায় শ্রমজীবীদের অবসরকালীন দুয়ারে স্বাস্থ্য চিকিৎসা শিবির। হয়তো রোজগারের টানে দিনে চিকিৎসা করাতে অপারগ তাই রাতের বেলায় কাজ থেকে এসে একটু বিশ্রামপান। সেই সময়েই চলমান চেম্বার পৌঁছে যাচ্ছে স্বাস্থ্য পরিক্ষা করতে তাদের বাড়ির দরজায় নাইট হেলথ ক্যাম্পের মাধ্যমে। গ্রামীণ মানুষের স্বাস্থ্য পরিষেবা প্রদানে এ এক অভিনব পরিকল্পনা বা উদ্যোগ বলা যায়। এই অতিমারি সময়ে শ্রমজীবী মানুষের চিকিৎসার্থে বীরভূমের সিউড়ি সংলগ্ন “বড় আলুন্দা” গ্রামে উপহার ওয়েলফেয়ার সোসাইটির “FEVER CLINIC ON WHEELS” চলমান চেম্বার নাইট হেলথ ক্যাম্পের আয়োজন করে পরীক্ষা মূলকভাবে।

সংস্থার কর্নধার প্রিয়নীল পাল জানান, দিন আনা দিন খাওয়া প্রান্তিক কৃষক, শ্রমিক, মজুররা যেহেতু এখন সকাল থেকেই মাঠের কাজে ব্যস্ত, এজন্য তাদের সুবিধা সময় অনুযায়ী রাত্রিতে এই ক্যাম্পের ব্যবস্থা করা হয়েছে। গ্রামের সকলেই যেন স্বাস্থ্য পরীক্ষার সুযোগ গ্রহণ করতে পারেন। রাত্রি কালীন চিকিৎসা শিবিরে ডাক্তার হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সিউড়ি সদর হাসপাতালের চিকিৎসক জীষ্ণু ভট্টাচার্য, সেই সঙ্গে ছিলেন উক্ত হাসপাতালের টেকনিশিয়ানরা। এই শিবিরে প্রতিটা মানুষের প্রেসার, সুগার, অক্সিজেন টেস্ট সহ করোনা সচেতনতার বার্তাও দেওয়া হয়।

চিকিৎসক জীষ্ণু ভট্টাচার্য জানান, রাত্রিকালীন এই ক্যাম্প সত্যিই খুব উপকারী, গ্রামের মানুষজন সারাদিন নানান কাজে ব্যস্ত থাকেন তাই অনেক সময়েই তারা সঠিক সময়ে ডাক্তার দেখানো থেকে বঞ্চিত হয়। তাই রাতের বেলায় চলমান চেম্বারের এই উদ্যোগ খুবই কার্যকরী। এই ক্যাম্পের মাধ্যমে অনেক মানুষের লুকিয়ে থাকা সুগার, এছাড়াও জ্বর, দীর্ঘদিনের গায়ে হাতে ব্যাথার মতন লক্ষণ দেখা যায় এবং চিকিৎসা করা হয়।

এই শিবিরে সর্বমোট ৭০ জন রোগীর স্বাস্থ্য পরীক্ষা করা হয়, শিবির চলে সন্ধ্যা ৬ টা থেকে রাত্রি ৯ টা অবধি।রাত্রিকালীন চিকিৎসা শিবির ঘিরে স্বেচ্ছাসেবীদের পাশাপাশি গ্রামবাসীদের ও উৎসাহ উদ্দীপনা ছিল চোখে পড়ার মত।

Facebook Comments