গোমাতা রক্ষা করতে সঙ্গে তলোয়ার রাখুন, উস্কানিমূলক বক্তব্য VHP নেত্রী সাধ্বীর, টিপু সুলতানকে দেশদ্রোহীর তকমা

গোমাতা রক্ষা করতে সঙ্গে তলোয়ার রাখুন, উস্কানিমূলক বক্তব্য VHP নেত্রী সাধ্বীর, টিপু সুলতানকে দেশদ্রোহীর তকমা

বেঙ্গল রিপোর্ট, ডিজিটাল ডেস্ক: ফের বিতর্কিত মন্তব্য বিশ্ব হিন্দু পরিষদ নেত্রী সাধ্বী সরস্বতী। তার ভাষণে হিন্দুদের পরামর্শ দিলেন, পরিবার ও গোরক্ষায় অস্ত্র কিনুন এবং তা সবসময় সঙ্গে রাখুন। আরও বললেন, কর্ণাটকের যাঁরা টিপু সুলতানের প্রশংসা করে তাঁরা দেশদ্রোহী।

রবিবার কর্ণাটকে উদুপি জেলার গান্ধী ময়দানে বিশ্বহিন্দু পরিষদ ও বজরং দলের হিন্দু সংগম অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন সাধ্বী। সেখানে তিনি বক্তৃতা রাখতে গিয়ে উস্কানিমূলক বক্তব্য দিয়ে বলেন, গোটা পৃথিবীতে গোমাতাকে শ্রদ্ধা করা হয় কিন্তু কর্ণাটকে গরুকে হত্যা করে মাংস খেয়ে থাকে কিছু মানুষ। এই কষাইদের এদেশে থাকার যোগ্যতাই নেই। এরাই অস্ত্র দেখিয়ে হিন্দুদের গোয়াল থেকে গরু চুরি করে। ফলে আমাদেরও গোমাতাকে রক্ষা করার জন্য সঙ্গে তলোয়ার রাখা উচিত।

তিনি আরো বলেন, লাখ টাকা দিয়ে যাঁরা ফোন কিনতে পারেন, তাঁরা একটা তলোয়ারও নিশ্চয়ই কিনতে পারবেন, নিজেদের পরিবার ও গোমাতার নিরাপত্তার স্বার্থে। সেই সঙ্গে তিনি বলেন, কর্ণাটকের কিছু দেশদ্রোহী টিপু সুলতানের প্রশংসা করে থাকেন, এঁদের বিরুদ্ধে একজোট হয়ে প্রতিবাদ জানাতে হবে। কষাই, ধর্মান্তকরণ ও লভ জিহাদের বিরুদ্ধে কড়া আইন আনতে হবে সরকারকে।

প্রসঙ্গত, এর আগেও গোরক্ষা ইস্যুতে বিতর্ক উসকে দিয়েছেন সাধ্বী। যাঁরা গরুর মাংস খান, তাঁদের ফাঁসিতে ঝোলানোর দাবি করেছিলেন। গোয়ার পানাজির রামনাথিতে অল ইন্ডিয়া হিন্দু কনভেনশনে বক্তব্য রাখতে গিয়ে সেবার ভারত সরকারের কাছে তাঁর আবেদন ছিল, যারা মর্যাদার প্রতীক হিসেবে নিজের মায়ের মাংস খায় তাদের ফাঁসিতে ঝোলানো উচিৎ। এবং তা হওয়া উচিৎ জনসমক্ষে। সেটা করতে পারলেই মানুষ বুঝতে পারবে যে, গো-মাতাকে রক্ষা করাটা তাদের পক্ষে কতটা জরুরি।

Facebook Comments