সচেতনতা অবলম্বন করে তারাপীঠ মন্দির খুললেও হাঁসি নেই লজ মালিক ও অটো ট্রেকার চালকদের

সচেতনতা অবলম্বন করে তারাপীঠ মন্দির খুললেও হাঁসি নেই লজ মালিক ও অটো ট্রেকার চালকদের

অমলেন্দু মন্ডল, বেঙ্গল রিপোর্ট, বীরভূম: দীর্ঘ তিন মাসের ও বেশী দিন বন্ধ তারাপীঠ মন্দির। কৌষিকী অমাবস্যায় ও এবারই প্রথম মন্দির বন্ধো ছিলো করোনা ভাইরাসের কারণে। দীর্ঘ দিন মন্দির বন্ধ থাকার ফলে চরম হতাশার মধ্যে রয়েছেন লজ মালিক থেকে ছোট ছোট ব্যাবসায়ী ও প্রায় হাজার খানেকের ও বেশি অটো ট্রেকার চালক। জীবন জীবিকার তাগিদে বেশির ভাগ অটো ট্রেকার চালক মালিক ওখন সবজি বিক্রেতা কিংবা লটারী বিক্রেতা। করোনা কেড়েছে সব কিছু।

রামপুরহাট অটো ট্রেকার ইউনিয়নের নেতা রাজা সেখ জানান আমরা সারা জীবন রামপুরহাট স্টেশনে অটো ট্রেকার চালিয়ে সংসার চালাই এখানে তারাপীঠ ও রামপুরহাট মিলে আমরা হাজারের বেশি মানুষ যুক্ত কিন্তু কয়েক মাস থেকে করোনার কারনে ট্রেন বন্ধ, বন্ধ তারাপীঠ মন্দির, যাত্রীদের যাতায়াত একেবারেই বন্ধ তাই আমাদের সংসারে এখন নুন আনতে পান্তা ফুরিয়ে যাচ্ছে। লক ডাউনের শুরুতে কিছু সহৃদয় ব্যাক্তি আমাদের বহু পরিবার কে সাহায্য সহযোগিতা করেছেন, কিন্তু দীর্ঘদিন সেটা কারো পক্ষে সম্ভব নয়। তাই এখন কেউ দীন মজুর, কেউ লটারী বিক্রেতা কেউ বা সবজি বিক্রি করছে। সব চেয়ে সমস্যার মধ্যে রয়েছে যারা ব্যাঙ্ক থেকে ঋন নিয়ে অটো ট্রেকার কিনে ব্যাবসা শুরু করেছিলো। তারা না ব্যাঙ্কের ঋণ শোধ করতে পারছে, না সংসার চালাতে পারছে। এখন তারা বহু জায়গায় সুধে টাকা নিয়ে সে টাকা ও দিতে পারছে না। সামনে আত্মহত্যা ছাড়া পথ নেই।

মন্দির সোমবার খুললো তাহলে কি দীন ফিরবে, রাজা সেখ জানান এখন মন্দির খুললে ও আমাদের কোন লাভ নেই। কারণ ট্রেন না চললে যাত্রী আসবে না। যারা আসবেন তারা নিজস্ব গাড়ি তে আসবেন। স্থানীয়রা নিজেদের বাইকে যাবেন, ফলে আমাদের কোন লাভ নেই।
একই বক্তব্য তারাপীঠ লজ মালিক দের লজ মালিক আশিষ মন্ডল, সৌরেন চ্যাটার্জি জানান মন্দির খুললেও আমাদের ব্যাবসা আগের মতো হবে না, কারণ করোনার কারনে এমনিতেই মানুষ আসবেন কম আসলেও গাড়ি তে আসবেন, সকালে আসবেন বিকেলে চলে যাবেন লজে থাকবেন কজন? এমনিতেই বিগত পাঁচ মাস বন্ধ সব কিছু লজের স্টাফ দের বেতন সহ মেন্টেনেন্স করতে অনেক লজ মালিক ই দেনাগ্রস্ত হয়ে গেছেন। এখন ট্রেন না চললে পরিস্থিতি স্বাভাবিক হবে না।

তারাপীঠ মন্দির কমিটির সভাপতি তারাময় মুখার্জী জানান আমরা সব রকম সচেতনতা অবলম্বন করেই মন্দির খুললাম জানি ভক্ত এখন বেশী আসবেন না, তবে মা তারার কৃপাতে সব ঠিক হয়ে যাবে স্বাভাবিক হবে সব কিছু।

Facebook Comments