উচ্চ মাধ্যমিকে ৮৪:২৯ শতাংশ পাওয়া নয়াপুট সুধীরকুমার হাইস্কুলের অভাবী ছাত্রী ভবিষ্যতে পুলিশ হতে চায়

উচ্চ মাধ্যমিকে ৮৪:২৯ শতাংশ পাওয়া নয়াপুট সুধীরকুমার হাইস্কুলের অভাবী ছাত্রী ভবিষ্যতে পুলিশ হতে চায়

সুব্রত গুহ, বেঙ্গল রিপোর্ট, পূর্ব মেদিনীপুর:
ছোটবেলা থেকেই অভাবের সঙ্গে লড়াই করে এবছর উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষায় ৮৪.২০ শতাংশ নম্বর পেয়ে নয়াপুট সুধীর কুমার হাইস্কুলের কৃতি ছাত্রী হিসেবে উত্তীর্ণ হয়েছে অভাবী ছাত্রী চুমকি ঘোড়াই। এবছর উচ্চ – মাধ্যমিক পরীক্ষায় চুমকির প্রাপ্ত নম্বর ৪৩৬।

শৈশবে পিতৃহীন স্টার প্রাপক ছাত্রী চুমকি গৃহবধু মায়ের তত্ত্বাবধানে ই বেড়ে উঠেছে দৈনন্দিন অভাবের সঙ্গে লড়াই করতে করতে। একদিকে নিদারুন অভাব ও অন্যদিকে দু বছর লকডাউনের যন্ত্রনাকে অতিক্রম করে সে এই সাফল্য অর্জন করেছে। সর্বদা সুখে- দুখে পাশে থাকা মা গীতা রানী ঘোড়াই ও নয়াপুট সুধীরকুমার হাইস্কুলের প্রধান শিক্ষক বসন্তকুমার ঘোড়ইকে তার উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষার সাফল্যের প্রধান কারিগর বলে জানিয়েছে চুমকি। একদিকে করোনা ও লকডাউনে স্কুল বন্ধ অন্যদিকে প্রাইভেট টিউশান পড়বার পরিস্থিতিও ছিল না কাঁথির পশ্চিম ভগবানপুর গ্রামের চুমকির।

স্কুলের বিষয় ভিত্তিক কতিপয় শিক্ষকের পাঠদানে সহযোগিতা ও সর্বোপরি বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক বসন্ত কুমার ঘোড়ই মহাশয়ের মানবিক ও স্নেহশীল সাহচর্যে চুমকিকে স্কুলের ছাত্রীনিবাসে রেখে পড়াশুনা করিয়েছেন। তাই, জেদী এই ছাত্রীটি আজ অভাব কে অতিক্রম করে সফল হয়েছে। চুমকির বিভিন্ন বিষয়ে প্রাপ্ত নম্বর হলো- বাংলা ৭৬, ইংরেজী-৮০, কম্পিউটার-৯০, পুষ্টিবিজ্ঞান – ৯৪, ভূগোল-৯৫, বায়োলজি-৭৭।

ছোট থেকেই অভাবের বিরুদ্ধ লড়াই করে আসা চুমকি ভবিষ্যতে কলেজে ডিগ্রি পরীক্ষায় পাশ করে মহিলা পুলিশ হতে চায়। নয়াপুট সুধীরকুমার হাইস্কুলের প্রধান শিক্ষক বসন্তকুমার ঘোড়ই চুমকির উজ্জ্বল ভবিষ্যত কামনার পাশাপাশি সবাইকে স্কুলের অভাবী কৃতি ছাত্রী চুমকির পাশে থাকার আহ্বান জানান।

Facebook Comments