বামপন্থী শ্রমিক কৃষক খেত মজুর সংগঠনগুলির অবস্থান ও ডেপুটেশন

বামপন্থী শ্রমিক কৃষক খেত মজুর সংগঠনগুলির অবস্থান ও ডেপুটেশন

সুব্রত গুহ, বেঙ্গল রিপোর্ট, মেদিনীপুর: পূর্ব মেদিনীপুরের খেজুরী ১ ব্লকের বামপন্থী শ্রমিক, কৃষক, খেতমজুর সংগঠন গুলির ডাকে – শ্রমিক স্বার্থবিরোধী শ্রম কোড বাতিলের বিরুদ্ধে, গ্রামীণ শ্রমজীবী মানুষের সামাজিক সুরক্ষার দাবিতে, খেতমজুরের ২০০ দিন কাজ, ৬০০ টাকা মজুরি, কৃষকের ফসলের ন্যায্য দাম ও কৃষি ক্ষেত্র কর্পোরেটদের অনুপ্রবেশ, অস্বাভাবিক মূল্যবৃদ্ধি, ধর্মীয় বিভাজনের বিরুদ্ধে, বেকারদের কাজ, চাকরির ক্ষেত্রে দুর্নীতি, গণতন্ত্র হত্যা, প্রতিবাদী দের উপর নগ্ন আক্রমণ, চুরি, খুন, ধর্ষণের বিরুদ্ধে- সম্প্রীতি রক্ষার দাবি নিয়ে ব্লক অফিসে সকাল এগারোটা থেকে দুটো পর্যন্ত কয়েক শত মানুষ অবস্থান কর্মসূচিও ডেপুটেশানে অংশগ্রহণ করেন।

নেতৃত্ব দেন-সারা ভারত খেতমজুর ইউনিয়নের সর্বভারতীয় নেতৃত্ব- হিমাংশু দাস, বামফ্রন্ট নেতা অমৃত মাইতি, (আরএসপি) খেতমজুর ইউনিয়নের রাজ্য কমিটির সদস্য চিত্ত দাস, শ্রমিক নেতা গোকুল ঘোড়ই, অতুল্য উকিল, জেলা কৃষক কাউন্সিল নেতা সমীরেন্দ্র নাথ কলা, শেখ মোস্তাক, অতনু রায়, রাম কুমার মাইতি, সুব্রত ঢালী, সেক সাকির, অমিয় আচার্য, শীর্ষেন্দু দাস, গৌতম প্রধান, শেখ রবিউল হোসেন প্রমূখ।

সভায় সভাপতিত্ব করেন-কৃষক নেতা বিশ্বজিৎ দাস। সাতজনের প্রতিনিধিদল খেজুরির-১ বিডিও পার্থ হাজরা মহাশয়ের সঙ্গে ১২ দফা দাবির ভিত্তিতে আলোচনা করেন। মূলত পঞ্চায়েতগুলিতে দুর্নীতি ও স্বজনপোষণের, এবং হেঁড়িয়াতে মৎস্য প্রকল্পের পরিবেশ দূষণের ক্ষেত্রে লিখিত অভিযোগের ভিত্তিতে তিনি সব রকম তদন্ত করে ব্যবস্থা নেবেন বলে জানিয়েছেন। আগামী এক মাসের মধ্যেই প্রশাসনিক কোন ব্যবস্থা গ্রহণ না করলে, জুলাই মাস থেকে বিক্ষোভ, আন্দোলন, অবস্থান কর্মসূচি লাগাতার চলবে বলে আন্দোলনকারীরা জানান।

Facebook Comments