রেড ভলান্টিয়ার্সের সুরক্ষায় বিজ্ঞান মঞ্চের পি পি ই, মাস্ক, গ্লাভস স্যানিটাইজার বিলি

রেড ভলান্টিয়ার্সের সুরক্ষায় বিজ্ঞান মঞ্চের পি পি ই, মাস্ক, গ্লাভস স্যানিটাইজার বিলি

সুব্রত গুহ, বেঙ্গল রিপোর্ট, পূর্ব মেদিনীপুর: করোনা মহামারীর সময় নিজেদের জীবনের ঝুঁকি নিয়ে কাজ করছে বিশ্বজিৎ, তেহেরান, অর্ণব, সৈকত, রাজা, হিমাদ্রি, রবীন্দ্র, শুভ, তপেন্দু বাসুদেব, ভবানী, বখতিয়ার, রহিম, প্রণব, তাপস, অঙ্কুরময়, সুমনরা।এদের পরিচয় এরা সকলেই বাম ছাত্র যুব সংগঠনের রেড ভলান্টিয়ার্সের সদস্য। এই রেড ভলেন্টিয়ার্সদের সুরক্ষার কথা ভেবে বুধবার এগিয়ে এলো বিজ্ঞান মঞ্চের কাঁথি শাখা।

গোটা দেশের সঙ্গে আমাদের রাজ্যও ভয়াবহ করোনার বিরুদ্ধে লড়াই করছে। রাজ্যের করোনা আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা প্রতিদিন হু হু করে বাড়ছে। সেই সঙ্গে বাড়ছে মানুষের আতঙ্ক। মানুষ করোনার ভয়ে ভীতসন্ত্রস্ত। অসহায় মানুষ হাসপাতালের একটা বেডের জন্য, একটা অক্সিজেন সিলিন্ডার পাওয়ার জন্য দিশেহারা হয়ে ঘুরে বেড়াচ্ছে। সেসময় সাধ্যমত সহযোগিতার হাত নিয়ে তাদের পাশে দাঁড়াচ্ছে বাম ছাত্র যুব আন্দোলনের কর্মীরা। যাদের একটাই পরিচয় রেড ভলেন্টিয়ার্স। কারুর অক্সিজেন সিলিন্ডার লাগলে কারোর ওষুধপত্র দরকার হলে পৌঁছে দিচ্ছে তাদের বাড়িতে। কারোর ফোন এলে হাতে অক্সিমিটার দৌড়ে যাচ্ছেন রক্তে অক্সিজেনের মাত্রা পরিমাপ করতে আবার কারোর অ্যাম্বুলেন্সের প্রয়োজন হলে যোগাযোগ করে অ্যাম্বুলেন্স এর ব্যাবস্থা করে দিচ্ছেন। কারোর বাড়িতে বাজার করার লোক না থাকলে তার বাড়িতে বাজারটুকু করে দিয়ে আসছেন এই করোনা মহামারীর সময় নিজেদের জীবনের ঝুঁকি নিয়ে।

কাঁথির রেড ভলেন্টিয়ার্সের সদস্যদের জীবন সুরক্ষার কথা ভেবে বুধবার বিজ্ঞান মঞ্চের নেতৃত্ব ডাক সুনিত জানা, শিক্ষক সৌমিত্র সাউ, সম্পাদক কৃষ্ণপদ পঞ্চধ্যায়ী, জয়দেব পন্ডা প্রমূখ আলোচনা সভা করেন রেড ভোলেনটিয়ার্সদের সুরক্ষার বিষয় নিয়ে আলোচনার পাশাপাশি আরো বেশি করে কিভাবে মানুষের পাশে দাঁড়ানো যায় তা নিয়ে আলোচনায় অংশ নেন।

ডক্টর সুনিত জানা করোনা মহামারী সময় রেড ভলেন্টিয়ারদের কিভাবে কাজ করলে আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা কম হবে সে বিষয়ে সবিস্তারে বলেন। পরিশেষে ভলেন্টিয়ারদের সুরক্ষার কথা ভেবে তাদের হাতে পি পি ই, গ্লাভস, স্যানিটাইজার, মাস্ক ইত্যাদি তুলে দেন। রেড ভলেন্টিয়ার্সের পক্ষে এগুলো গ্রহণ করেন বিশ্বজিৎ মেইকাপ ও তেহেরান হোসেন। তেহেরান হোসেন বিজ্ঞান মঞ্চের এই উদ্যোগকে সাধুবাদ জানিয়ে কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।

Facebook Comments