ছয় মাসের সিলেবাসের সেমিস্টারের পরীক্ষা মাত্র দুই মাসে! অনলাইন পরীক্ষার দাবি আলিয়া বিশ্ববিদ্যালযয়ের ছাত্রছাত্রীদের

ছয় মাসের সিলেবাসের সেমিস্টারের পরীক্ষা মাত্র দুই মাসে! অনলাইন পরীক্ষার দাবি আলিয়া বিশ্ববিদ্যালযয়ের ছাত্রছাত্রীদের

রাকিবুল আলম, বেঙ্গল রিপোর্ট, কলকাতা: ছয় মাসের সিলেবাস মাত্র দুই মাসে শেষ!এই দুই মাসে কিছু ক্লাস অনলাইনে হয়েছে, আবার ছুটির কারণে নিয়মিত ক্লাসও হয়নি, এত সমস্যা সত্ত্বেও পরীক্ষা কেন অফলাইনে? এইসব বিভিন্ন অভিযোগ করে আলিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের পার্কসার্কাস ও নিউটাউন ক্যাম্পাসে বিশ্ববিদ্যালটির ছাত্রছাত্রীরা একত্রিত হয়ে অনলাইন পরীক্ষা দাবিতে আন্দোলন করে। মঙ্গলবার আলিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রছাত্রীরা বিশ্ববিদ্যালয়ের পার্কসার্কাস ক্যাম্পাসের প্রবেশপথের প্রধান গেট বন্ধ করে দিয়ে ও গাছের গুঁড়ি ফেলে অনলাইন পরীক্ষা দাবিতে স্লোগান দিতে থাকে। ছাত্র-ছাত্রীরা অনলাইনে পরীক্ষা না হলে অফলাইন পরীক্ষা বয়কট করার কথা জানায় এবং আন্দোলন চালিয়ে যাওয়ার ঘোষণা দেয়।

ইতিমধ্যে বিভিন্ন ছাত্র সংগঠনের পক্ষ থেকে অনলাইন পরীক্ষার জন্য রাজ্য সরকারের কাছে আবেদন জানানো হয়েছে। তারপরেই বিদ্যাসাগর বিশ্ববিদ্যালয়, ওয়েস্ট বেঙ্গল স্টেট বিশ্ববিদ্যালয় এবং কল্যাণী বিশ্ববিদ্যালয়ে দ্বিতীয়, চতুর্থ ও ষষ্ঠ সেমিস্টারের পরীক্ষা অনলাইনে নেওয়ার নোটিশও জারি করা হয়েছে। তাই অন্যান্য বিশ্ববিদ্যালয়ের মতো ও বিশ্ববিদ্যালয়ের অন্যান্য বিভিন্ন সমস্যার কথা বিবেচনা করে আলিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র-ছাত্রীরাও অনলাইন পরীক্ষার দাবি জানায়।

বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র-ছাত্রীদের অনেকেরই অভিযোগ, ছয় মাসের সেমিস্টারের সিলেবাস মাত্র দুই মাসে শেষ করা হয়েছে। অনেক ক্ষেত্রে শুধুমাত্র নোটস দিয়ে দায়িত্ব সারার চেষ্টা করা হয়েছে। আবার মাত্র দুই মাস ক্লাসের মধ্যেও অনেক ক্লাস অনলাইনে নেওয়া হয়েছে। ফলে সম্পূর্ণ সিলেবাস ভালোভাবে শেষ না করে কোনরকমে মেকআপ দিয়ে অফলাইন পরীক্ষার নোটিশ জারি করা হয়। আর তাই ছাত্র-ছাত্রীদের অভিযোগ কল্যাণী বিশ্ববিদ্যালয় ও বিদ্যাসাগর বিশ্ববিদ্যালয়ের মতো বিশ্ববিদ্যালয়গুলিতে অনলাইন পরীক্ষার বিজ্ঞপ্তি জারি করলেও আলিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের এত সমস্যা থাকা সত্বেও অফলাইনে পরীক্ষা কেন?

বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র সাজিদুর রহমানের অভিযোগ, “কল্যাণী বিশ্ববিদ্যালয় ও বিদ্যাসাগর বিশ্ববিদ্যালযয়ের মতো বিশ্ববিদ্যালয়গুলি অনলাইনে পরীক্ষা নেওয়ার ফলে পরবর্তীকালে বিভিন্ন প্রতিযোগিতামূলক পরীক্ষায় নম্বরের ভিত্তিতে মেধা যাচাই এর ক্ষেত্রে আলিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রছাত্রীরা অনেক পিছিয়ে থাকবে। তাই অন্যান্য বিশ্ববিদ্যালয়ের মতো আলিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের পরীক্ষা অনলাইনে নেওয়ার দাবি জানাচ্ছি।”

ছাত্র-ছাত্রীরা বিশ্ববিদ্যালয়টির পার্কসার্কাস ক্যাম্পাসে প্রায় রাত দশটা পর্যন্ত অধ্যাপক ও শিক্ষাকর্মীদেরকে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রবেশ গেটে তালা লাগিয়ে অবরুদ্ধ করে রাখে এবং তাদের দাবি পূরণ না হওয়া পর্যন্ত গেট না খোলার কথা জানায়। পরবর্তীতে প্রায় রাত ১০ টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের পার্কসার্কাস ক্যাম্পাসে ভাইস চ্যান্সেলর ও রেজিস্টার এসে উপস্থিত হন এবং এবং বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক অন্যান্য ও দায়িত্বশীলদের সঙ্গে আলোচনায় বসেন। আলোচনা শেষে প্রায় রাত বারোটা নাগাদ বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইস চ্যান্সেলর ছাত্র-ছাত্রীদের দাবীর ব্যাপারে পরেরদিন আলোচনার আশ্বাস দিয়ে বেরিয়ে যায়। তবে ছাত্রছাত্রীরা অনলাইনে পরীক্ষা বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ না করা হলে পরবর্তীতে আবারও আন্দোলন চালিয়ে যাওয়ার কথা জানায়।

Facebook Comments