‘ক্ষমা চাও, না হলে আদালতে দেখা হবে!’ আইনে যুদ্ধে বাবুল বনাম অভিষেক

‘ক্ষমা চাও, না হলে আদালতে দেখা হবে!’ আইনে যুদ্ধে বাবুল বনাম অভিষেক

নিজস্ব সংবাদদাতা, বেঙ্গল রিপোর্ট, কলকাতা: কেন্দ্রীয় মন্ত্রীকে আইনি চিঠি। আসানসোলের বিজেপি সাংসদ বাবুল সুপ্রিয়কে আইনি নোটিশ পাঠাচ্ছেন তৃণমূল সাংসদ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। ক্ষমা না চাইলে মানহানির মামলার হুমকি অভিষেকের। অভিষেকের পাঠানো আইনি নোটিশে ‌৭২ ঘণ্টার মধ্যে ক্ষমা চাইতে বলা হয়েছে বাবুলকে। অন্যথায় আইনি ব্যবস্থা নেওয়ার হুঁশিয়ারি দেওয়া হয়েছে। ৩১ ডিসেম্বর তাঁর বিরুদ্ধে বাবুল সুপ্রিয় যা মন্তব্য করেছিলেন, তা ভিত্তিহীন এবং অপমানজনক বলে নোটিশে উল্লেখ করেছেন অভিষেক। দাবি করেছেন, অবশ্যই বাবুলকে ক্ষমা চাইতে হবে। আর তা নাহলে আদালতেই জবাব দিতে হবে বাবুলকে। করা হবে তাঁর বিরুদ্ধে মানহানির মামলা।

এদিকে, তৃণমূল সাংসদ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে আদালতে গিয়েছেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। অভিষেকের বিরুদ্ধে ব্যাঙ্কশাল আদালতের এসিএমএমের এজলাসে মানহানির মামলা দায়ের করেছেন দিলীপ। ডায়মন্ড হারবারের একটি জনসভায় দিলীপ ঘোষকে গুন্ডা, মাফিয়া বলে সম্বোধন করেন অভিষেক। আইনি চিঠি পাঠিয়ে তাঁকে বক্তব্য প্রত্যাহার করতে বলেন দিলীপ। কিন্তু, সেই চিঠির জবাব দেননি অভিষেক। এর পর সরাসরি আদালতে মামলা দায়ের করেছিলেন দিলীপ। তাঁর আইনজীবীর দাবি, ‘অভিষেকের বক্তব্য মানহানিকর। সেই বক্তব্য জনসমক্ষে রেখে তিনি দিলীপ এবং তাঁর দলের কর্মীদের অসম্মান করেছেন। আমরা আদালতের কাছে অভিষেকের শাস্তি দাবি করেছি।’ সেই মামলা এখনও আদালতে বিচারাধীন।

Facebook Comments