বাংলায় সাম্প্রদায়িক শক্তির জায়গা নেই, নাবাবিয়া মিশনের বস্ত্র বিতরণের এসে বললেন যুব সহ-সভাপতি শান্তনু ব্যানার্জি

বাংলায় সাম্প্রদায়িক শক্তির জায়গা নেই, নাবাবিয়া মিশনের বস্ত্র বিতরণের এসে বললেন যুব সহ-সভাপতি শান্তনু ব্যানার্জি

আরিফুল ইসলাম, বেঙ্গল রিপোর্ট, হুগলী: বাংলায় সাম্প্রদায়িক শক্তিকে জায়গা কোনভাবেই দেওয়া যাবে না। শুভ শারদীয়া উৎসব উপলক্ষে নবাবিয়া মিশনের একটি বস্ত্র বিতরণ অনুষ্ঠানে এসে বললেন রাজ্য যুব সহ-সভাপতি ও হুগলি জেলা স্বাস্থ্য কর্মদক্ষ শান্তনু ব্যানার্জি। এদিন নবাবিয়া মিশন এর অডিটোরিয়াম হলে শারদীয় উপহার হিসেবে বস্ত্র তুলে দেয়া হয় কয়েকশো মানুষের হাতে। বর্তমান পরিস্থিতিকে মাথায় রেখে সম্পূর্ণ সোশ্যাল ডিসটেন্স বজায় রেখে সরকারি নিয়ম মেনে অনুষ্ঠানটি পরিচালনা করা হয়।

 

নাবাবিয়া মিশনে সাধারণ সম্পাদক শেখ সাহিদ আকবার বলেন আমরা প্রত্যেক বৎসর এইসময় বস্ত্র উপহার মানুষের হাতে তুলে দিই। এছাড়াও সারা বছর নবাবিয়া মিশন শিক্ষা আন্দোলনের সাথে রাজ্যে একটা জায়গা তৈরি করে নিয়েছে। এই মিশনের ছাত্র-ছাত্রীরা রাজ্য দেশ তথা দেশের বাইরে প্রতিষ্ঠিত। এবছর মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিকের রেজাল্ট নজর কেড়েছে রাজ্যবাসী কাছে। কয়েকদিন আগে জয়েন এন্ট্রান্স রেজাল্টে নবাবিয়া মিশন এর ছাত্র একাধিক সুযোগ পেয়েছে। এর পাশাপাশি এই ধরনের সামাজিক কাজ আমরা সারা বছর করে থাকি। কখনো বস্ত্র কখনো চিকিৎসার জন্য অর্থ কখনো মেধাবী ছাত্র ছাত্রীদের জন্য স্কলারশীপ। বন্যায় ত্রাণ, লকডাউনে ত্রাণ, আম্ফানে ক্ষতিগ্রস্ত মানুষের পাশে গিয়ে দাঁড়ানো। সুন্দরবন এলাকায় গিয়ে সেখানে দীর্ঘদিন ধরে ক্যাম্প করে পরিস্থিতির শিকার অসহায় মানুষদের খাবার হাতে তুলে দেওয়া।

শেখ শাহিদ আকবর আরও জানান আমরা বহু সহৃদয় ব্যক্তির এই কাজে সহযোগিতা। পাই যে মানুষটিকে নবাবিয়া মিশন কখনো ভুলবেনা চির কৃতজ্ঞ থাকবে। তিনি পাশে না থাকলে এই ধরনের কাজ কখনই করা সম্ভব হতো না। পতাকা ইন্ডাস্ট্রিজ প্রাইভেট লিমিটেডের কর্ণধার জিডি চ্যারিটেবল সোসাইটির চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মোস্তাক হোসেন সাহেবের দুহাত ভরে অনুদানের কথা পতাকা পরিবারের কথা। শারিফ হসেন, মোশরেফা হোসেন, মোতাহার হোসেন, সাইদুল খান সহ পরিবারের সকল সদস্যকে জানাই মোবারকবাদ কৃতজ্ঞতা জানাই। আই এস নুরুল হক সাহেবকেও কৃতজ্ঞতা জানাই।

এদিন অনুষ্ঠানে শান্তনু ব্যানার্জি বলেন আমি এই প্রথম নাবাবিয়া মিশনে এলাম ভেতরে ঢোকার এর আগে সেই ভাবে হয়ে উঠেনি এ অনুষ্ঠানে না আসলে আমি অনেক কিছু মিস করতাম। এসে দেখলাম মাইনোরিটিপ্রাপ্ত একটি মিশন এখানে সম্প্রীতির এত সুন্দর বাতাবরণ তৈরি হয় তার নজির আজকেই বস্ত্র বিতরণ অনুষ্ঠানে তৈরি করেছে নবাবিয়া মিশন। এই লকডাউনে খানাকুলের মানুষের হৃদয়ে পৌঁছে গেছে নবাবিয়া মিশন। আমি এই মিশনের পাশে আছি আগামীতে সুবিধা-অসুবিধা সর্বদায় থাকবো এবং গার্লস হোস্টেল নির্মাণের জন্য যে রাস্তাটি হওয়ার প্রয়োজন সেটি আগামী তিন-চার মাসের মধ্যে তৈরি করে দেবো।

এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন খানাকুল পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি নাঈমুল হক, ঠাকুরানিচক পঞ্চায়েত প্রধান শীতল মন্ডল, আলী হাসান, সন্দীপ বর, অসিত সিংহ রায়, যুনাইদুল হক চৌধুরী, শেখ মোহাম্মদ ইসমাইল সহ এলাকার বিশিষ্ট জনেরা।

সমগ্র অনুষ্ঠানটি সুষ্ঠুভাবে পরিচালনা করেন সাইদুল হাসান, শেখ জামাল উদ্দিন, সেলিম বাদশা, কামরুজ্জামান মিথ্যা, শেখ মোহাম্মদ আকিব।

Facebook Comments