নজিরবিহীন: ফেসবুক গ্রুপ থেকে সমাজসেবা, প্রত্যন্ত গ্রাম্য এলাকায় শতাধিক মানুষের ফ্রী চিকিৎসা ও রক্তদান শিবিরের আয়োজন

নজিরবিহীন: ফেসবুক গ্রুপ থেকে সমাজসেবা, প্রত্যন্ত গ্রাম্য এলাকায় শতাধিক মানুষের ফ্রী চিকিৎসা ও রক্তদান শিবিরের আয়োজন

বাদশা সেখ, বেঙ্গল রিপোর্ট, কলকাতা: বর্তমান সময়ে সামাজিক মাধ্যম তথা ফেসবুক যুবসমাজকে যেমন ধ্বংসের দিকে ঠেলে দিচ্ছে, অন্যদিকে এর অপব্যবহার বেড়ে উঠছে এমনটাই মতামত বিশ্লেষণ কারীদের।

উল্লেখ্য, ২০২০ সালে কয়েকজন মেডিক্যাল পড়ুয়া সহ আরো অন্যান্য ছাত্রছাত্রীদের মাধ্যমে গড়ে ওঠে একটি ফেসবুক গ্রুপ। যার নামকরণ করা হয়েছে “মিলন হবে কত দিনে”। প্রথমদিকে এই গ্রুপ বিনোদন হিসেবে ব্যবহার হলেও পরবর্তীতে এই গ্রুপের সদস্য সংখ্যা বেড়ে ওঠাই গ্রুপ এডমিনদের মাথায় অন্য চিন্তা চলে আসে। এ বিষয়ে গ্রুপ এডমিন ডাক্তার সাইদ সানি আনোয়ার ও চক্ষুবিজ্ঞান বিভাগের ছাত্রী সাহিনা সুলতানার বক্তব্য, আমরা বিনোদনের সাথে সাথে বিভিন্ন ধরনের সমাজসেবা মূলক কাজ করে যেতে চাই। রাজ্য সহ দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে বর্তমানে আমাদের গ্রুপের মেম্বারের সংখ্যা ২১ হাজারে‌ও বেশি। তাই এই বিপুল সংখ্যক সদস্যরা যদি কিছুটা সহযোগিতা করে এগিয়ে আসে, তাহলে আমাদের বড় অঙ্কের অর্থের ফাণ্ড তৈরি হয়ে উঠবে। সেই ফাণ্ড থেকে আমরা সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে সমাজের বিভিন্ন স্তরের মানুষের দুঃখ, কষ্ট, বিভিন্ন সমস্যা দূরীকরণে পাশে দাঁড়াতে পারবো। তবে আপনাদের জানিয়ে রাখি এখন শুধু ফেসবুক গ্রুপ নয় বরং এটি একটি পাকাপাকি ভাবে ফাউন্ডেশনে গড়ে তুলেছি আমরা যার নামকরণ করা হয়েছে (MHKD) ফাউন্ডেশন। পরবর্তীতে আমার এই ফাউন্ডেশনের মাধ্যমে বিভিন্ন সামাজিক কাজ করে এগিয়ে যেতে চাই।

করোনা মহামারীর সময় কিছুটা হলেও এই সব সমস্যার সমাধান করতে তৎপর হল সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম তথা ফেসবুক গ্রুপ। “মিলন হবে কত দিনে” নামে এই গ্রুপের অ্যাডমিন মডারেটর দের প্রচেষ্টায় মুর্শিদাবাদ জেলার এক প্রত্যন্ত গ্রাম রামনগরে অনুষ্ঠিত হল স্বেচ্ছায় রক্তদান শিবির ও ফ্রি মেডিকেল ক্যাম্প। উক্ত ক্যাম্প থেকে শতাধিক মানুষের বিভিন্ন রোগের ফ্রিতে চিকিৎসা সহ প্রয়োজনীয় ঔষধ পত্র‌ও দেওয়া হলো। পাশাপাশি এই অনুষ্ঠানেই এক রক্তদান শিবিরের আয়োজন করা হয়। ২০ জন মানুষ উক্ত শিবিরে স্বেচ্ছায় রক্তদান করেন। এর আগে এই গ্রুপ থেকেই “সানন্দ ধাম” সোনারুন্ডি রাজবাড়ি ২৮ মার্চ অনাথ আশ্রমের শিশুদের একদিনের দুপুরের খাবারের আয়োজন করে একটি অনুষ্ঠান করা হয়েছিল। এছাড়াও ১৭ ই জানুয়ারি কোলকাতায় শতাধিক সদস্যদের নিয়ে একটি মিলনমেলার আয়োজনও করা হয়েছিল। এডমিনদের কথায় সর্বোপরি দেশ তথা রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্তে যখন ডাক্তাররা হেনস্তার শিকার হচ্ছে অপরদিকে এই মহামারীর সময় সঙ্কটকালে মানুষের পাশে দাঁড়িয়ে নিরলস ভাবে মানুষের সেবায় নিয়োজিত করে চলেছে চিকিৎসকরা। তাদের জন্য একরাশ ভালোবাসা ও শুভকামনা এই ভাবেই তারা এগিয়ে যাক ও আপনারা পাশে থাকুন, দুআ ও আশীর্বাদ করুন।

বিশেষ উল্লেখযোগ্য, এদিনের ফ্রি মেডিকেল ক্যাম্পে চেকআপের দায়িত্বে ছিলেন “মুর্শিদাবাদ মেডিকেল কলেজে”র ডাক্তার জ্যোতির্ময় ভট্টাচার্য, জোহার রাঘিভ, রিয়া প্রামানিক, নাজমা সুলতানা, দীপাঞ্জনা সরকার, মহঃ সাবির উদ্দিন, সাঈদ সানি আনওয়ার।
এই অনুষ্ঠানে বিশেষ ভাবে সহয়তা করেছেন স্থানীয় এডভোকেট ইমতিয়াজ মল্লিক, ইলিয়াস শেখ, শেখ সাকিল আনসারি, রাজা শেখ।

ফেসবুক গ্রুপের উদ্যোগে এই মহৎ কর্মসূচিকে সাধুবাদ জানিয়ে উপস্থিত ছিলেন, শক্তিপুর থানার ওসি সুব্রত ঘোষ মহাশয় সহ বিশিষ্টজনরা।

Facebook Comments