হটাৎ বন্ধ হয়ে গেল হোয়াটসঅ্যাপ, ফেসবুক, ইন্সটাগ্রাম পরিষেবা: কারণ জানতে বিস্তারিত দেখুন

হটাৎ বন্ধ হয়ে গেল হোয়াটসঅ্যাপ, ফেসবুক, ইন্সটাগ্রাম পরিষেবা: কারণ জানতে বিস্তারিত দেখুন

বেঙ্গল রিপোর্ট, ডিজিটাল ডেস্ক: হটাৎ বিনা নোটিশে বিশ্বজুড়ে বন্ধ হয়ে গেল হোয়াটসঅ্যাপ, ফেসবুক, ইন্সটাগ্রাম পরিষেবা। সোমবার রাত ৯ টা ৫ নাগাদ হঠাৎ কাজ করা বন্ধ করে দেয় বিশ্বে সর্বাধিক জনপ্রিয় এই তিন সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্ম। কেন এমনটা হল সেটা অবশ্য সংশ্লিষ্ট সংস্থার পক্ষ থেকে জানানো হয়নি। তবে এই ধরনের সমস্যা বিগত কয়েক মাস ধরেই এই সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্মগুলিতে দেখা যাচ্ছে। আগে একসঙ্গে তিনটি জনপ্রিয় প্ল্যাটফর্ম একসঙ্গে বন্ধ হয়ে যাওয়ার ঘটনা খুব একটা ঘটেনি। তবে কেন তা বন্ধ হল, কখনই বা সেটা চালু হবে, সব নিয়েই আতঙ্কে ব্যবহারকারীরা।

সূত্র জানাচ্ছে, বিশ্বের বেশ কয়েকটি দেশে এই পরিষেবা ব্যাহত হয়েছে। এই বিভ্রাটের সত্যতা ফেসবুকের পক্ষ থেকে নিশ্চিত করা হয়েছে। এই বিষয়ে তাদের ওয়েবসাইটে জানানো হয়, “দুঃখিত, কিছু একটা সমস্যা হয়েছে। আমরা দ্রুততার সঙ্গে সমস্যা সমাধান করার চেষ্টা চালাচ্ছি।” ব্যবহারকারীরা জানাচ্ছেন, শুধুমাত্র এই তিনটি সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্ম নয়, সেই সঙ্গে কেনাকাটা করার, খাবার-দাবার অর্ডার করার, বা বিনোদনমূলক যে সকল অ্যাপ রয়েছে, সেগুলিও কাজ করা বন্ধ করে দিয়েছে। ফলে বড়সড় সমস্যার সম্মুখীন হয়েছেন নেটিজেনরা।

সমস্যার কথা স্বীকার করা হয়েছে হোয়াটসঅ্যাপ কর্তৃপক্ষের তরফেও। হোয়াটসঅ্যাপের অফিশিয়াল টুইটার হ্যান্ডেল থেকে একটি টুইট করে লেখা হয়, “আমরা বুঝতে পারছি বেশ কিছু মানুষ হোয়াটসঅ্যাপ ব্যবহার করতে গিয়ে কিছু সমস্যার সম্মুখীন হচ্ছেন। আমরা চেষ্টা করছি যাতে স্বাভাবিক অবস্থা ফিরিয়ে আনা যায়। সমস্যার সমাধন হলেও দ্রুত জানানো হবে।”

লক্ষ্যণীয় বিষয় হচ্ছে, যতগুলি সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্ম কাজ করা বন্ধ করে দিয়েছে, সেগুলি সবই ফেসবুকের মালিকাধীন। ফেসবুক কর্তৃপক্ষ এই সংস্থাগুলি অধিগ্রহণ করার পর থেকেই এই ধরনের সমস্যা বেড়ে গিয়েছে বলে অভিযোগ ব্যবহারকারীদের। অন্যদিকে, পরিষেবা বিকল হওয়ার পর এক ঘণ্টার কাছাকাছি সময় কেটে গেলেও তা এখনও স্বাভাবিক হয়নি। কেন এমনটা হল সে সম্পর্কেও খোলসা করে কিছু জানানো হয়নি কোনও তরফে। বিভ্রাট শুরু হওয়ার পর প্রায় দেড় ঘণ্টা কেটে গেলেও পরিষেবা এখনও স্বাভাবিক হয়নি। কখন ঠিক হবে, তাও নির্দিষ্ট করে জানানো হয়নি সংশ্লিষ্ট সংস্থার পক্ষ থেকে।

Facebook Comments